নতুন বিয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন হৃতিক

0
296
‘বিশ্বের সবচেয়ে হ্যান্ডসাম পুরুষ’ হৃতিক রোশন। ছবি: ফেসবুক পেজ থেকে

প্রায় দুই বছর পর ফিরলেন হৃতিক রোশন। উপহার দিলেন হিট ছবি ‘সুপার থার্টি’। হৃতিককে সুপারহিরো ‘কৃষ’রূপে যেমন গ্রহণ করেছেন দর্শক, গ্রামের দরিদ্র, তুখোড় মেধাবী আনন্দ কুমার হিসেবেও ততটাই আপন করে নিয়েছেন। সম্প্রতি হৃতিক গিয়েছিলেন কপিল শর্মার শোতে। জীবনে কতবার বিয়ের প্রস্তাব পেয়েছেন, সে ব্যাপারে ওই শোতে মুখ খুলেছেন তিনি। জানিয়েছেন, তাঁর একটি ছবি মুক্তি পাওয়ার পর ৩০ হাজারের বেশি বিয়ের প্রস্তাব পে‌য়েছিলেন বলিউডি এই তারকা।

আজ থেকে ১৯ বছর আগে ব্লকবাস্টার হিট ‘কহো না পেয়ার হ্যায়’ (২০০০) ছবির মাধ্যমে নতুন করে জন্ম নেন নতুন হৃতিক। দুই দশক ধরে একই উজ্জ্বলতায় আলো ছড়িয়ে যাচ্ছেন এই তারকা। ‘কহো না পেয়ার হ্যায়’ ছবিতে হৃতিকের বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন আমিশা পাটেল। হৃতিক-আমিশার সেই ছবি ঝড় তুলেছিল দেশ ও দেশের বাইরে।

ওই বছরই সুজানকে বিয়ে করেছিলেন হৃতিক। কিন্তু এরপরও হৃতিকের কাছে এসেছিল হাজার হাজার বিয়ের প্রস্তাব। কপিল শর্মার শোতে গিয়ে সে কথাও জানিয়েছেন হৃতিক। বলেছেন, ‘কহো না পেয়ার হ্যায়’ মুক্তির পরেই বিয়ের প্রস্তাবে ভেসে গিয়েছিলেন তিনি। ওই সিনেমা ছিল হৃতিক-আমিশা— দুজনেরই প্রথম ছবি। সেই সিনেমা হিট হতেই রাতারাতি নিজ পরিচয়ে পরিচিতি পান, তারকা হন রাকেশপুত্র।

১৯ বছর আগে ‘কহো না পেয়ার হ্যায়’ ছবির মাধ্যমে নতুন করে জন্ম নেন নতুন হৃতিক। ছবি: ফেসবুক পেজ থেকে

 

‘কাহো না পেয়ার হ্যায়’ ছবিতে অনবদ্য অভিনয় উপহার দিয়ে সেরা অভিনেতা এবং সেরা নবাগত অভিনেতা হিসেবে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পাওয়ার সৌভাগ্য অর্জন করেছিলেন হৃতিক। এ ছাড়া ২০০৩ সালে লিমকা বুক অব রেকর্ডসে ঠাঁই পায় ‘কহো না পেয়ার হ্যায়’ ছবির নাম। সবচেয়ে বেশিসংখ্যক পুরস্কার ঝুলিতে ভরে রেকর্ড গড়েছিল হৃতিক অভিনীত ছবিটি। বিভিন্ন পুরস্কার প্রদান আসর থেকে সব মিলিয়ে ১০২টি পুরস্কার পেয়েছিল ‘কহো না পেয়ার হ্যায়’।

তাঁর অভিনীত ‘ধুম টু’, ‘যোধা আকবর’, ‘মিশন কাশ্মীর’ ছবিগুলো বক্স অফিসে বাম্পার ব্যবসা করে এবং সেই সঙ্গে সমালোচক কর্তৃক নন্দিতও হয়। হৃতিকের বাবা প্রখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক রাকেশ রোশন। ১৯৭৪ সালের ১০ জানুয়ারি মুম্বাইয়ে জন্মগ্রহণ করেন বলিউডের এই জনপ্রিয় অভিনেতা।

সম্প্রতি জনপ্রিয় ফুটবল তারকা ডেভিড বেকহ্যাম, ‘টোয়াইলাইট’ ছবির নায়ক রবার্ট প্যাটিনসন আর ‘ক্যাপ্টেন আমেরিকা’ ছবির নায়ক ক্রিস ইভানের মতো সুপুরুষদের পেছনে ফেলে ‘বিশ্বের সবচেয়ে হ্যান্ডসাম পুরুষ’ হয়েছেন তিনি।

‘বিশ্বের সবচেয়ে হ্যান্ডসাম পুরুষ’ হৃতিক রোশন। ছবি: ফেসবুক পেজ থেকে

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক একটি এজেন্সি থেকে সম্প্রতি একটি জরিপ পরিচালনা করা হয়। বিভিন্ন দেশের দর্শক অংশ নেন সেই জরিপে। এরপর চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করা হয়। এর আগে বিশ্বের অন্যতম ‘গুড লুকিং ম্যান’ খেতাব পেয়েছেন হৃতিক রোশন। মেদহীন ও পেশিবহুল শরীর, এইট প্যাক অ্যাবস, শক্ত লম্বা চোয়াল ও তীক্ষ্ণ চোখ। তাঁকে অনেকেই তুলনা করেন গ্রিক দেবতার মূর্তির সঙ্গে। বিশ্বের অনেকের কাছে তিনি ‘ফিটনেস আইকন’।

হৃতিক রোশনের পরবর্তী ছবি ‘ওয়ার’। পরিচালক সিদ্ধার্থ আনন্দ। ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন টাইগার শ্রফ ও বাণী কাপুর। যশরাজ ফিল্মস প্রযোজিত ছবিটি মুক্তি পাবে ২ অক্টোবর। সূত্র: এনডিটিভি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে