নতুন ইতিহাস, তিনে ০, চারে ০, পাঁচে ০

0
145
রান করার আগেই বোল্ড আউট হন মুশফিক। ছবি: এএফপি
ইডেন গার্ডেনস টেস্টে মুমিনুল হক, মোহাম্মদ মিঠুন ও মুশফিকুর রহিমের স্কোর যথাক্রমে ০, ০ ও ০। অনাকাঙ্ক্ষিত ও বিচিত্র এক নজিরই গড়লেন এ তিন ব্যাটসম্যান

 

ঐতিহাসিক টেস্ট খেলতে নেমে ইতিহাসই গড়লেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানেরা। এমন এক ইতিহাস উপমহাদেশের মাটিতে যা প্রথম। তবে এই ‘প্রথম’ বাংলাদেশের সমর্থকদের যে কেউ ভুলে থাকতে চাইবেন।

ইডেন গার্ডেনসে প্রথম সেশন দেখলে কিংবা স্কোর জানা থাকলে খানিকটা অবাক লাগাই স্বাভাবিক। ভাবতে পারেন, ব্যাটসম্যানদের যাওয়া-আসার মিছিলে আবার কীসের ইতিহাস! আসলে ইতিবাচক কিংবা নেতিবাচক—ইতিহাস তো ইতিহাসই। বাংলাদেশের তিন ব্যাটসম্যান মুমিনুল হক, মোহাম্মদ মিঠুন ও মুশফিকুর রহিম অজান্তেই এমন ইনিংস খেলেছেন যা উপমহাদেশের মাটিতে এর আগে কখনো দেখা যায়নি।

মুমিনুল নেমেছেন তিনে, মিঠুন চারে ও মুশফিক পাঁচে। তাঁদের সম্মিলিত স্কোর ০। তিনজনই আউট হয়ে ড্রেসিং রুমে ফিরেছেন খাতা খোলার আগেই। টেস্টে এক ইনিংসে ব্যাটিং অর্ডারের তিনে, চারে ও পাঁচে নামা ব্যাটসম্যানদের শূন্য রানে আউট হওয়ার নজির কিন্তু এর আগেও চারবার দেখা গেছে— ১৮৯৯ সালে লিডস টেস্ট, ১৯৫৫ সালে ওভাল টেস্ট, ২০০৪ সালে কিংসটন টেস্ট, ২০০৫ সালে হারারে টেস্ট। নিশ্চয়ই ধরতে পেরেছেন ‘প্রথম’টা তাহলে কি—হ্যাঁ, বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের সৌজন্যে (!) উপমহাদেশের মাটিতে এ ঘটনা দেখা গেল এবারই প্রথম।

মুমিনুলও ফিরেছেন রানের খাতা খোলার আগে। ছবি: এএফপি

লিডস টেস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় ইনিংসে শূন্য রানে আউট হয়েছিলেন যথাক্রমে ক্লেম হিল (তিন), সিড গ্রেগরি (চার) ও মন্টি নোবেল (পাঁচ)। ৫৬ বছর ওভাল টেস্টে একই নজির দেখা গেছে দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংসে। সেটিও দ্বিতীয় ইনিংস। নির্ভেজাল ‘ডাক’ মেরে ফেরেন হেডলি কিথ (তিন), রাসেল ইন্ডিন (চার) ও রয় ম্যাকলিন (পাঁচ)। এ টেস্টের পর কেটে গেছে ৪৯ বছর।২০০৪ সালে কিংস্টনে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একই নজির গড়েন রামনরেশ সারওয়ান (তিন), শিবনারায়ন চন্দরপল (চার) ও ব্রায়ান লারা (পাঁচ)। এবারও সেই দ্বিতীয় ইনিংস!

পরের বছর হারারে টেস্টে পাল্টে যায় প্রতিপক্ষ ও ইনিংস। এবার আর প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড নয় নিউজিল্যান্ড, আর সেটি ছিল জিম্বাবুয়ের প্রথম ইনিংস। আউট হন ডিওন ইব্রাহিম, হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও ক্রেগ উইশার্ট। আর এবার কলকাতায় ঠিক একই কাজ করলেন মুমিনুল, মিঠুন ও মুশফিক। গোলাপি বলে প্রথমবারের মতো দিবারাত্রির টেস্ট খেলতে নেমে এই ‘ইতিহাস’ নিশ্চয়ই ভুলে থাকতে চাইবেন ব্যাটসম্যানেরা।

মিঠুনও রানের দেখা পাননি। ছবি: এএফপি

এবার ভারত সফরে টেস্ট সিরিজে এমন ‘অনাকাঙ্ক্ষিত’ কিংবা বিচিত্র ইতিহাস এর আগেও গড়েছে বাংলাদেশ। ইন্দোর টেস্টে সেই বিচিত্র স্কোরকার্ডের কথাই ধরুন। বাংলাদেশের দুই ওপেনার সাদমান ইসলাম ও ইমরুল কায়েস দুই ইনিংসেই ৬ রানে আউট হয়েছেন। এক দলের ওপেনারদের দুই ইনিংসেই একই স্কোরে আউট হওয়ার এই নজির টেস্ট ক্রিকেটের ১৪২ বছরের ইতিহাসে প্রথম!

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে