চুরির অভিযোগে ৪ জনের হাত কেটে দিয়েছে তালেবান

0
36
২০২১ সালের আগস্টে আফগানিস্তানের ক্ষমতা গ্রহণ করে তালেবান। ছবি- সংগৃহীত।

তালেবান শাসিত আফগানিস্তানের কান্দাহারে ডাকাতি ও সমকামিতার দায়ে ৯ ব্যক্তিকে প্রকাশ্যে বেত্রাঘাত করা হয়েছে। এছাড়া চুরির দায়ে প্রকাশ্যে চার ব্যক্তির হাত কেটে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) কান্দাহারের আহমেদ শাহি স্টেডিয়ামে বেত্রাঘাতের ঘটনা ঘটে। খবর- এনডিটিভি।

আফগানিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট এক বিবৃতিতে বলেন, ডাকাতি ও সমকামিতার দায়ে নয়জনকে সাজা দেওয়া হয়েছে। আফগানিস্তানের টোলো নিউজ সুপ্রিম কোর্টের বিবৃতিটি টুইট করেছে।

বেত্রাঘাতের সময় স্থানীয় কর্তৃপক্ষ ও কান্দাহারের বাসিন্দারা স্টেডিয়ামে উপস্থিত ছিলেন। প্রাদেশিক গভর্নরের মুখপাত্র হাজি জায়েদ বলেছেন, দোষী ব্যক্তিদের ৩৫ থেকে ৩৯টি করে বেত্রাঘাত করা হয়েছে।

ব্রিটিশ-আফগান সমাজ-রাজনৈতিক কর্মী শবনম নাসিমি বলেছেন, চুরির অভিযোগে কান্দাহারের একটি ফুটবল স্টেডিয়ামে দর্শকদের সামনে গতকাল তালেবান চারজনের হাত কেটে দিয়েছে বলে জানা গেছে। আফগানিস্তানে ন্যায়বিচার ও যথাযথ প্রক্রিয়া ছাড়াই লোকজনকে বেত্রাঘাত, অঙ্গচ্ছেদ ও মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হচ্ছে, যা মানবাধিকারের লঙ্ঘন।

জাতিসংঘের বিশেষজ্ঞরা আফগানিস্তানে প্রকাশ্যে বেত্রাঘাত ও মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, ২০২২ সালের ১৮ নভেম্বর থেকে এখন পর্যন্ত তালেবান কর্তৃপক্ষ আফগানিস্তানের বেশ কয়েকটি প্রদেশে শতাধিক ব্যক্তিকে বেত্রাঘাত করেছে বলে জানা গেছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.