ইউক্রেন থেকে খাদ্যপণ্য নিয়ে বন্দর ছাড়ল আরও চার জাহাজ

0
65
খাদ্যশস্য নিয়ে বন্দর ছাড়ছে জাহাজ, ছবি: রয়টার্স

ইউক্রেনের সমুদ্রবন্দর কর্তৃপক্ষ ফেসবুকে জানিয়েছে, ইউক্রেন থেকে ৪টি জাহাজ ১ লাখ ৭০ হাজার টন শস্য ও অন্য খাদ্যসামগ্রী নিয়ে বন্দর ছেড়েছে।

গত মাসে জাতিসংঘ ও তুরস্কের সহায়তায় ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে কৃষ্ণসাগরের বন্দরগুলো দিয়ে খাদ্যসামগ্রীবাহী জাহাজ চলাচল নিয়ে চুক্তি স্বাক্ষর হয়। এর আগে জাতিসংঘ সতর্ক করে বলেছিলে, ইউক্রেন থেকে খাদ্যশস্য রপ্তানি বন্ধ থাকলে বিশ্বের অনেক অঞ্চলে দুর্ভিক্ষ দেখা দেবে। ইউক্রেন থেকে খাদ্যশস্য রপ্তানি বন্ধ থাকায় ইতিমধ্যে বিশ্বে খাদ্যসহ বিভিন্ন পণ্যসামগ্রীর দাম বেড়ে গেছে।

এদিকে গতকাল শনিবার বিদেশি পতাকাবাহী একটি জাহাজ ইউক্রেনে প্রবেশ করে। গত ফেব্রুয়ারি মাসে ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর থেকে সেখানে বিদেশি পতাকাবাহী জাহাজ প্রবেশের ঘটনা এটাই প্রথম। ইউক্রেনের অবকাঠামোবিষয়ক মন্ত্রী ওলেকসান্দার কুবরাকভ বলেন, ‘বিদেশি পতাকাবাহী প্রথম কোনো জাহাজ ইউক্রেনের খাদ্যশস্য নিতে বন্দরে এসেছে। আমরা ধীরে ধীরে বড় ধরনের রপ্তানি দিকে অগ্রসর হচ্ছি। ভবিষ্যতে মাসে ১০০টির বেশি জাহাজ বন্দরে যাতায়াতের সক্ষমতা নিশ্চিত করতে কাজ করছি।’

কুবরাকভ আরও বলেন, ‘ইউক্রেন থেকে খাদ্যশস্য রপ্তানিতে শিগগিরই পিভদেনি বন্দরকে কাজে লাগানোর পরিকল্পনা করা হচ্ছে। এতে প্রতি মাসে ইউক্রেন থেকে ৩০ লাখ টন খাদ্যশস্য রপ্তানি করা যাবে।’

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়া হামলা শুরুর আগে দুই দেশ মিলে বিশ্বের মোট গম রপ্তানির এক–তৃতীয়াংশ রপ্তানি করত। শনিবার রাতে জেসিসি জানায়, কৃষ্ণসাগরের করিডর দিয়ে মোট পাঁচটি জাহাজ চলাচলের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

এর মধ্যে চারটি জাহাজ চরনোমোরস্ক ও ওদেসা বন্দর থেকে ১ লাখ ৬১ হাজার ৮৪ টন খাদ্যশস্য নিয়ে ছেড়ে যাবে। অন্যদিকে একটি জাহাজ ইউক্রেনে প্রবেশ করবে।

তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইউক্রেনের বন্দর থেকে গ্লোরি নামের একটি জাহাজ ৬৬ হাজার টন শস্য নিয়ে ইস্তাম্বুলে ও রিভা উইন্ড নামের একটি জাহাজ ৪৪ হাচার টন শস্য নিয়ে তুরস্কের ইস্কান্দারন বন্দরে নোঙর করবে। অন্য দুটি জাহাজের মধ্যে একটি স্টার হেলেনা ৪৫ হাজার টন খাদ্যপণ্য নিয়ে চীনের উদ্দেশে ও মুস্তাফা নেকাটি নামের আরেকটি জাহাজ ৬ হাজার টন সূর্যমুখী তেল নিয়ে ইতালির উদ্দেশে যাত্রা করবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.