২০২৬ ফুটবল বিশ্বকাপের লোগো উন্মোচন

0
78
২০২৬ ফিফা বিশ্বকাপের লোগো।

কাতারে অনুষ্ঠিত ২০২২ বিশ্বকাপে রেশ এখনও কাটেনি। এর মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র, মেক্সিকো এবং কানাডায় যৌথভাবে অনুষ্ঠিতব্য ২০২৬ বিশ্বকাপের লোগো উন্মোচন করা হয়েছে।

আগামী বিশ্বকাপের তিন বছর বাকি থাকলেও বৃহস্পতিবার ফিফার ৫৩ বছর বয়সী প্রেসিডেন্ট ইনফান্তিনো ও ব্রাজিলের ২০০২ বিশ্বকাপ জয়ী কিংবদন্তি স্ট্রাইকার রোনালদো নাজারিও দ্য লিমা ওই লোগো উন্মোচন করেন।

এছাড়া ফিফা বিশ্বকাপ ২০২৬-এর স্লোগান নির্ধারণ করা হয়েছে, ‘উই আর টোয়েন্টি সিক্স (২৬)।’

বিষয়টি নিয়ে জিওন্নি ইনফান্তিনো বলেছেন, “উই আর টোয়েন্টি সিক্স হলো একটি সম্মিলিত মিছিল। এটি এমন একটি মুহূর্ত যেখানে তিনটি দেশ এবং ওই মহাদেশ একসঙ্গে বলছে, ‘আমরা বিশ্বের সবচেয়ে বড়, সেরা এবং অসাধারণ ফিফা বিশ্বকাপ উপহার দেওয়ার জন্য একত্রিত হয়েছি।”

আগামী ফিফা বিশ্বকাপের লোগো একেবারেই সাদামাঠা করা হয়েছে। বিশ্বকাপ ট্রফি নিয়ে তার পিছনে সাদা রঙয়ে ২৬ সংখ্যা লিখেই ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে সমালোচনাও হচ্ছে।

একজন টুইট করেছেন, ‘দেখুন কীভাবে ৬০ সেকেন্ডে ফিফা বিশ্বকাপের লোগো নিয়ে গবেষণা করে তা বানিয়ে দেওয়া যায়।’ এরপর গুগল লিংক দিয়ে মজা করেছেন তিনি। এমন আরও অনেকে লোগো পছন্দ হয়নি বলে জানিয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে ফিফার প্রধান বাণিজ্য কর্মকর্তা রুমি গাই বলেছেন, ‘একজন স্থানীয় ফুটবল ভক্ত থেকে বৈশ্বিক সুপারস্টার কিংবা বিশেষ স্থানে এই লোগোটি এর স্বতন্ত্র দিকগুলো ফুটিয়ে তুলবে এবং ৪৮ দল নিয়ে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপের বৈচিত্র্যময় দিকগুলো ফুটিয়ে তুলবে।’

তিন দেশ নিয়ে আগামী বিশ্বকাপ হবে মোট ১৬টি স্টেডিয়ামে। এর মধ্যে ১১টি স্টেডিয়াম ১৯৯৪ সালের পর বিশ্বকাপ আয়োজনের স্বত্ত্ব পাওয়া যুক্তরাষ্ট্রের। তিনটি স্টেডিয়াম মেক্সিকোর এবং কানাডার দুটি স্টেডিয়ামে খেলা হবে। এর মধ্যে ১৫টি স্টেডিয়ামের দর্শক ধারণক্ষমতা ৫০ হাজার থেকে ৮৭ হাজারের মধ্যে। কেবল কানাডার টরেন্টোর একটি স্টেডিয়ামের দর্শক ধারণাক্ষমতা ৩০ হাজার।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.