মুক্তিযোদ্ধার ঘাড় মটকে দেওয়ার হুমকি, মন্ত্রীকে শোকজ

0
82
নুরুজ্জামান আহমেদ

বীর মুক্তিযোদ্ধার ‘ঘাড় মটকে দেওয়ার’ হুমকির ঘটনায় নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে লালমনিরহাট-২ (আদিতমারী ও কালীগঞ্জ) আসনের নৌকার প্রার্থী সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদকে শোকজ (কারণ দর্শানো) নোটিশ দিয়েছে নির্বাচন অনুসন্ধান কমিটি। আগামী ৩১ ডিসেম্বর রোববারের মধ্যে তাকে নোটিশের জবাব দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

গত ২৬ ডিসেম্বর বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মর্তুজা হানিফ জেলা রিটানিং কর্মকর্তাকে অভিযোগ করেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী নূরুজ্জামান আহমেদ ঘাড় মটকানোর মাধ্যমে তাকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছেন। ওই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে নির্বাচন অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান তাহমীদুর রহমান এই অফিস আদেশ জারি করেন।

মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মর্তুজা হানিফ রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য ও কালীগঞ্জ উপজেলার ভোটমারী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান।

জানা যায়, গত ২৩ ডিসেম্বর রাতে উপজেলার মদাতী ইউনিয়নের চামটারহাট স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় সামজকল্যাণ মন্ত্রী নূরুজ্জামান আহমেদ মুক্তিযোদ্বা হানিফের নাম উল্লেখ করে ঘাড় মটকে দেওয়ার হুমকি দেন। সমাজকল্যাণ মন্ত্রী ওই সভায় আরও বলেন, সেদিন ভুল্ল্যার হাটে এক মিটিংয়ে গোলাম মর্তুজা হানিফ যে বাজে কথা বলেছেন, তাকে সতর্ক করে দিচ্ছি। এ ধরনের বাজে কথা যদি আর কোনদিন বল। তাহলে, ‘তোমার ঘাড় মটকে দিব, তুমি এখনো লোক চেন না। তোমার চরিত্রের ঠিক নাই আবার নেতা সাজতে চাও। এ সময় তিনি ওই মুক্তিযোদ্ধার ব্যক্তিগত চরিত্র নিয়েও কথা বলেন। তার এ  বক্তব্যের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়।

স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সিরাজুল হক ঈগল প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন। তার পক্ষে কাজ করছেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রীর ছোট ভাই কালীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মাহবুবুজ্জামান আহমেদ, আদিতমারী উপজেলা চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস ফারুখ ও মুক্তিযোদ্বা গোলাম মর্তুজা হানিফ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.