দুই সপ্তাহে ডেঙ্গুতে ১৪ মৃত্যু

0
122
ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীদের বিছানায় মশারি টাঙিয়ে চলছে চিকিৎসা

বর্ষা মৌসুম শুরুর আগেই দেশে হানা দেওয়া মশাবাহিত রোগ ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব বাড়ছেই। মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে চলতি মাসের দুই সপ্তাহে ডেঙ্গুতে মৃত্যু হয়েছে ১৪ জনের, যা বছরের মোট মৃত্যুর প্রায় অর্ধেক। এ বছর ডেঙ্গুতে ২৭ জন মারা গেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ২১১ জন রোগী, যা এ বছরের সর্বোচ্চ। আগের দিন ভর্তি রোগীর সংখ্যা ছিল ১৮০ জন। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ১৭৪ জনই ঢাকার। বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৩৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্তদের মধ্যে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে সোমবার মৃত্যু হয়েছিল দুজনের।

নতুন রোগীদের নিয়ে এ বছর সারাদেশে হাসপাতালে ভর্তি ডেঙ্গুরোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে তিন হাজার ৬০১ জন। এর প্রায় অর্ধেক ১৫৭৯ জন শুধু জুনের প্রথম ১৩ দিনে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে রোগী ভর্তি আছেন ৭০৩ জন। তাদের মধ্যে ঢাকায় ৫৭৫ জন এবং ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ১২৮ জন।

মাসের হিসাবে জানুয়ারিতে ৫৬৬ জন, ফেব্রুয়ারিতে ১৬৬ জন, মার্চে ১১১ জন, এপ্রিলে ১৪৩ জন এবং মে মাসে ১০৩৬ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এদের মধ্যে জানুয়ারিতে ছয়জন, ফেব্রুয়ারিতে তিনজন, এপ্রিলে দুজন এবং মে মাসে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এডিস মশাবাহিত এই রোগে আক্রান্ত হয়ে গত বছর ৬২ হাজার ৩৮২ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হন। তাদের মধ্যে রেকর্ড ২৮১ জনের মৃত্যু হয়। এর আগে ২০১৯ সালে দেশের ৬৪ জেলায় এক লাখের বেশি মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে গিয়েছিলেন, যা এ যাবৎকালের সর্বোচ্চ। সরকারি হিসাবে সে বছর মৃত্যু হয়েছিল ১৬৪ জনের।

ডেঙ্গুরোগী বৃদ্ধি পাওয়া প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক মঙ্গলবার একটি অনুষ্ঠানে বলেন, দিনে দিনে ডেঙ্গু পরিস্থিতি উদ্বেগজনক পর্যায়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে দেশবাসীকে সতর্ক থাকতে হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.