এক কেন্দ্রে ভোট গ্রহণে ধীরগতি, ভোটারদের ক্ষোভ

0
111
শাহ্ মখদুম কলেজ কেন্দ্রের সামনে ভোটারদের সারি

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের শাহ্ মখদুম কলেজ কেন্দ্র। আজ বুধবার সকাল আটটায় সিটি নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শুরুর আগেই কেন্দ্রটিতে হাজির হন অনেক ভোটার। তৈরি হয় ভোটারদের দীর্ঘ সারি।

তবে ভোট শুরুর এক ঘণ্টা পর সারিতে থাকা ভোটারেরা বলেন, কেন্দ্রটিতে ভোট গ্রহণের গতি বেশ ধীর। এ কারণে অপেক্ষমাণ ভোটাররা ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

কেন্দ্রটিতে ভোট গ্রহণের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তারা বলেন, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট নেওয়া হচ্ছে। ইভিএমের সঙ্গে সবাই পরিচিত নন। এ কারণে ভোটারদের ভোট দিতে সময় একটু বেশি লাগছে। ফলে ভোটারদের উপস্থিতির তুলনায় ভোট পরার হার কম।

শাহ্ মখদুম কলেজ কেন্দ্রে নারীদের জন্য ভোটকক্ষ রয়েছে ছয়টি। পুরুষদের জন্য ভোটকক্ষ পাঁচটি। সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে কলেজটিতে গিয়ে দেখা যায়, ভোটকেন্দ্রের সামনে ভোটারদের দীর্ঘ সারি, বিশেষ করে নারী ভোটারদের।

সারিতে থাকা একাধিক ভোটার জানান, তাঁদের কেন্দ্রে নিয়ে এসেছেন ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মেহেদী হাসানের অনুসারীরা। মেহেদী হাসানের নির্বাচনী প্রতীক টিফিন ক্যারিয়ার। সারিতে দাঁড়িয়ে থাকা ভোটারদের অধিকাংশের গলায় টিফিন ক্যারিয়ার প্রতীকের ব্যাজ ঝুলতে দেখা যায়।

কেন্দ্রটিতে নারী ভোটার ১ হাজার ৬৬০ জন। প্রথম দেড় ঘণ্টায় কেন্দ্রে নারীদের ভোট পড়েছে ১০৪টি, যা মোট নারী ভোটারের প্রায় সাড়ে ৬ শতাংশ।

সকাল সাড়ে নয়টার দিকে কেন্দ্রের ৫ নম্বর ভোটকক্ষের সামনে অপেক্ষমাণ ছিলেন সেখের চক এলাকার ভোটার আজমিন মৌ। তিনি বলেন, দেড় ঘণ্টা ধরে সারিতে দাঁড়িয়ে আছেন তিনি। সারি এগোচ্ছে না। একজন ভোটার ৬ থেকে ৭ মিনিটেও ভোট দিতে পারছেন না।

কেন্দ্রটির ৫ নম্বর কক্ষে ভোটার ২৭৭ জন। প্রথম দেড় ঘণ্টায় ভোট পড়েছে ১৫টি। কক্ষটিতে ভোট গ্রহণের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তারা গোপনকক্ষে যাওয়ার আগে ভোটারদের বুঝিয়ে দিচ্ছিলেন, কীভাবে ইভিএমে ভোট দিতে হবে।

কক্ষটির দায়িত্বে থাকা সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা নাদিরা খাতুন বলেন, ‘ভোটার অনেক। কিন্তু ইভিএমে কীভাবে ভোট দিতে হয়, তা তাঁরা বুঝতে পারছেন না।’

ভোট শুরু পর সকাল সাড়ে নয়টা নাগাদ কেন্দ্রটির প্রতিটি নারী ভোটকক্ষের সামনে ২৫ থেকে ৩০ জন ভোটারকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। কেন্দ্রের মূল ফটকের বাইরেও দেখা যায় নারী ভোটারদের সারি।

কেন্দ্রটির প্রিসাইডিং কর্মকর্তা চিরঞ্জীব কুমার চক্রবর্তী বলেন, এখানে প্রথমবার ইভিএমে ভোট হচ্ছে। তাই লোকজনের বুঝতে সমস্যা হচ্ছে। অনেকের আঙুলের ছাপ মেলাতেও সময় লাগছে।

কলেজটির পুরুষ কেন্দ্রে মোট ভোটার ১ হাজার ৫১০ জন। প্রথম দেড় ঘণ্টায় ভোট পড়েছে ১০৯টি। ভোট পড়ার হার ৭ শতাংশ। কেন্দ্রের প্রতিটি পুরুষ ভোটকক্ষের সামনেও ২০ থেকে ২৫ জন ভোটারকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়।

ভোট গ্রহণের গতি কম থাকায় একাধিক ভোটার  কাছে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানান। ক্ষুব্ধ ভোটারদের শান্ত করার চেষ্টা করতে দেখা যায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য ও ভোট গ্রহণের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিদের।

আজ সকাল আটটায় এই সিটিতে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। ভোট গ্রহণ চলবে বিকেল চারটা পর্যন্ত।

সিটি নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র ১৫৫টি। ভোটকেন্দ্রগুলোয় ১ হাজার ১৫৩টি ভোটকক্ষ। সব কটি কেন্দ্রে ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ করা হচ্ছে।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মোট ভোটার ৩ লাখ ৫১ হাজার ৯৮২ জন। ভোটারদের মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ৭১ হাজার ১৬৭ জন। নারী ভোটার ১ লাখ ৮০ হাজার ৮০৯ জন। হিজড়া ভোটার ৬ জন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.