‘শীর্ষ ১০০ ক্ষমতাবান’ মোদিকে দিয়ে শুরু, দীপিকায় শেষ

0
226
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও দীপিকা পাড়ুকোন। ছবি: রয়টার্স

সবচেয়ে ক্ষমতাবান ভারতীয় কে? ভাবতে থাকুন, ততক্ষণে বলে দিই, দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস প্রতিবছরের মতো এবারও ‘শীর্ষ ১০০ ক্ষমতাবান’ ব্যক্তিত্বের তালিকা প্রকাশ করেছে। আর সেই তালিকায় স্থান পেয়েছেন আটজন বলিউড তারকা।

প্রথম প্রশ্নের উত্তরে যা ভেবেছেন, তা-ই। ২০১৯ সালের সবচেয়ে ক্ষমতাধর ভারতীয় হলেন নরেন্দ্র মোদি। মন্ত্রী, ব্যবসায়ী, বিচারপতি, রাজনীতিবিদ, সেনাপ্রধান ও গোয়েন্দাপ্রধান ছাড়াও সেই তালিকায় আছেন বলিউড তারকা অমিতাভ বচ্চন, সালমান খান, শাহরুখ খান, কঙ্গনা রনৌত ও দীপিকা পাড়ুকোন।

ক্ষমতাবানদের তালিকার দ্বিতীয় শীর্ষ অবস্থানে রয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তৃতীয় ক্ষমতাধর ব্যক্তি হলেন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ। চতুর্থ অবস্থানে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের প্রধান মোহন ভগত। আর পঞ্চম স্থানে আছেন রিয়ালেন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের চেয়ারপারসন মুকেশ আম্বানি। সেই তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন বলিউড তারকারা। তবে শীর্ষ ৫০ জনের মধ্যে নাম নেই কোনো বলিউড তারকার।

বড় পর্দার তারকাদের মধ্যে প্রথম স্থান অমিতাভ বচ্চনের। শীর্ষ ১০০ ক্ষমতাধরের তালিকায় তাঁর অবস্থান ৫৬তম। অর্থাৎ, এক বছরে বেশ খানিকটা ক্ষমতাধর হয়েছেন তিনি। কারণ, ২০১৮ সালে এই তালিকায় ৭৬ বছর বয়সী অমিতাভের অবস্থান ছিল ৭৭তম। ‘কলঙ্ক’ বা ‘স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার টু’র মতো ফ্লপ ছবি উপহার দেওয়ার পরও ক্ষমতা বেড়েছে করণ জোহরের। গত বছর তিনি ছিলেন ৯৮তম অবস্থানে। এ বছর ৭ জন ক্ষমতাবান ব্যক্তিকে টপকিয়ে তিনি আছেন ৯১তম অবস্থানে।

‘শীর্ষ ১০০ ক্ষমতাবান’ তালিকায় বড় পর্দার তারকাদের মধ্যে প্রথম স্থানে আছেন অমিতাভ বচ্চন। ছবি: রয়টার্স

করণ জোহরের একজন পরই আছেন অক্ষয় কুমার, ৯৩তম অবস্থানে। এ বছর ইতিমধ্যে তিনি ‘কেশরি’ ও ‘মিশন মঙ্গল’ ছবির মতো বক্স অফিস কাঁপানো ছবি উপহার দিয়েছেন। আর বলিউডের ‘ভাইজান’ সালমান খান আছেন ৯৬তম অবস্থানে। গত বছরের তুলনায় বেশ খানিকটা পিছিয়েছেন তিনি। একের পর এক মামলা, হুমকিতে জর্জরিত। তা ছাড়া ‘ভারত’ যা আয় করেছে, তা প্রত্যাশার তুলনায় কমই বলতে হবে। ২০১৮ সালে তিনি ছিলেন ৮১তম অবস্থানে।

ক্ষমতা কমেছে আমির খান আর শাহরুখ খানের। গত বছর তাঁরা দুজনে ছিলেন যথাক্রমে ৮০ ও ৮২তম অবস্থানে। এ বছর পা পিছলে পৌঁছে গেছেন ৯৭ ও ৯৮তম অবস্থানে। অন্যদিকে বলিউডের দুই ক্ষমতাবান নারী এই তালিকার সর্বশেষ স্থান দুটো দখল করেছেন। কঙ্গনা রনৌত হয়েছেন ৯৯তম। আর তাঁর পরের নামটিই দীপিকা পাড়ুকোনের। তিনি হয়েছেন ১০০তম।

অর্থাৎ, বলিউডের মাত্র আটজন তারকা ভারতের ‘শীর্ষ ১০০ ক্ষমতাবান’ তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন। আর তাঁদের সাতজনই নব্বইয়ের ঘরে আর শেষ পাঁচজন বলিউডের। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে দিয়ে যে তালিকা শুরু হয়েছে, তা শেষ করেছেন দীপিকা পাড়ুকোন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.