শাকিব খানকে নিয়ে অজানা তথ্য দিলেন নাবিলা

0
47
শাকিব খান ও নাবিলা।

এবারের ঈদে মুক্তি পেয়েছে শাকিব খান, মাসুমা রহমান নাবিলা, চঞ্চল চৌধুরী ও মিমি চক্রবর্তী অভিনীত বড় বাজেটের সিনেমা ‘তুফান’। রায়হান রাফী পরিচালিত সিনেমাটি নিয়ে এরই মধ্যে দর্শকের তুমুল আগ্রহ দেখা যাচ্ছে।

টিকিটের সংকটে হল ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটেছে। এই সিনেমায় শাকিব খানের সঙ্গে পর্দা ভাগ করে দীর্ঘ বিরতির পর নতুন করে আলোচনায় অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা। সিনেমা মুক্তির পর দেওয়া সাক্ষাৎকারে শাকিব খান সম্পর্ক কথা বলেছেন নাবিলা।

হলের সামনে থেকে গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শাকিব খানের সঙ্গে প্রথম দেখা হওয়ার অভিজ্ঞতা ভক্তদের জানিয়েছেন অভিনেত্রী।

তিনি বলেন, ‘শাকিব খানের সঙ্গে আমার প্রথম সেটেই দেখা হয়েছিল। প্রথম দেখাতেই তাঁর “তুফান”-এর লুকটা ছিল। প্রথম দেখেই মনে হয়েছিল, তিনি অনেক সুন্দর। তিনি আমাদের মতোই। তিনি স্টার, সুপারস্টার-মেগাস্টার, তিনি ধরাছোঁয়ার বাইরে, তাঁকে কোথাও সহজে দেখা যায় না, উনি আমাদের মতোই একজন সহজ মানুষ কিন্তু। তাঁর সঙ্গে বসে আমি গল্প করতে পারি। একটু নার্ভাসনেসও ছিল। সিনেমার শেষ দৃশ্যটাই সবার আগে শুটিং হয়েছে। তিনি শুটিংয়ে সাহায্য করেছেন। তবে তিনি একটু অন্তর্মুখী। কিন্তু সহ-অভিনেতার সঙ্গে আমার বন্ডিংটা দরকার ছিল।’

শাকিব খানকে নিয়ে নাবিলা আরও বলেন, ‘তাঁকে গাছের সঙ্গে দাঁড় করিয়ে দিলেও নিজের সেরাটা দিয়ে অভিনয় করে চলে যাবেন।

‘তুফান’–এর পোস্টারে মিমি, শাকিব খান ও নাবিলা। প্রযোজনা সংস্থার সৌজন্যে
‘তুফান’–এর পোস্টারে মিমি, শাকিব খান ও নাবিলা। প্রযোজনা সংস্থার সৌজন্যে

নিজের জন্যই তাঁর সঙ্গে গল্প করতাম। কথা বলতাম। প্রথমবার যখন গল্প করেছি, এরপর তিনি সহজ হয়ে গেছেন। তিনি আমাকে কল দিয়ে প্রশংসাও করেছেন। বলেছেন, আমি খুব ভালো অভিনয় করি, তিনি মুগ্ধ হয়ে গেছেন। কিন্তু তাঁকেই আমার কল দেওয়া উচিত ছিল।’

‘আয়নাবাজি’ থেকে ‘তুফান’—আলাপে আলাপে দুই সিনেমা নিয়ে নিজের অনুভূতিও প্রকাশ করেছেন নাবিলা। তাঁর ভাষ্যে, ‘আট বছর পর আমার নতুন সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। আমাকে আর বড় পর্দায় দেখা যাবে কি না, এই আট বছরে এটা নিয়ে আমার নিজের মনেই অনেকবার সংশয় তৈরি হয়েছে। “তুফান”-এর পরিচালক-প্রযোজককে ধন্যবাদ জানাই, তাঁরা আমার কথা মনে করেছেন। কারণ, একটা সময়ে তো মানুষ আমাকে ভুলতেও বসেছিল। তাঁরা আমাকে বিগ বাজেটের একটা সিনেমায় সুযোগ দিয়েছেন; আমার খুব ভালো লাগছে।’

‘আয়নাবাজি’ মুক্তির পর গত আট বছরে অনেক কিছু ঘটে গেছে। নাবিলা বিয়ে করেছেন, কন্যাসন্তানের মা হয়েছে। তবে এই বিরতিতে সেভাবে কাজ না করলেও আত্মবিশ্বাস হারাননি বলেও জানান নাবিলা। তিনি বলেন, ‘নিজের ওপর বিশ্বাস ছিল। আমি সব সময় অপেক্ষা করতে পছন্দ করি। যার ফল এখন পাচ্ছি।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.