রিয়াল মাদ্রিদের জয়ের মুকুট

0
68
শিরোপা উদ্‌যাপনে কোনো খামতি রাখেনি রিয়াল মাদ্রিদ। ছবি: এএফপি

ভিয়ারিয়ালকে ২–১ গোলে হারিয়ে লা লিগা চ্যাম্পিয়ন হলো রিয়াল মাদ্রিদ। রিয়ালের হয়ে জোড়া গোল করেন করিম বেনজেমা। ভিয়ারিয়ালের একমাত্র গোলটি করেন ইবোরা।

সব প্রস্তুতি নেওয়াই ছিল। শুধু সময়ের অপেক্ষা। এবার সেটাও ফুরাল। রিয়াল মাদ্রিদ সমর্থকেরা এখন কেক–টেক কেটে উদ্‌যাপন করে নিতে পারেন কোনো প্রশ্নবোধক চিহ্ন না রেখেই। ওহ চাইলে পরে নিতে পারেন ‘চ্যাম্পিয়ন’ লেখা ৩৪ নম্বর সেই জার্সিও। কারণ বেনজেমার জোড়া গোলে ভিয়ারিয়ালকে ২–১ গোলে হারিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। সেই সঙ্গে নিজেদের ৩৪তম লা লিগা শিরোপাটি ঘরে তুলেছি স্প্যানিশ জায়ান্টরা। লা লিগা চ্যাম্পিয়ন এখন জিদানের দল, চ্যাম্পিয়ন এখন রিয়াল মাদ্রিদ।

এমন উদ্‌যাপন তো বেনজেমাকেই মানায়। ছবি: এএফপি

নিজেদের মাঠে প্রথমার্ধের পুরোটা সময় আধিপত্য বিস্তার করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচের প্রথম সুযোগ তৈরি করেছে স্বাগতিকেরাই। ১৪তম মিনিটে ক্যাসেমিরোর বাড়ানো বলে সে সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন করিম বেনজেমা। অবশ্য গোলের জন্য খুব বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি রিয়াল সমর্থকদের। ম্যাচের ২৯ মিনিটে সে উপলক্ষ তৈরি করে দেন ওই বেনজেমাই। মৌসুমে রিয়ালের ফরাসি ফরোয়ার্ডের করা ২০তম গোলেই এগিয়ে যায় রিয়াল। এ ক্ষেত্রে লুকা মডরিচের পাসের কথা না বললে নিশ্চিত অপরাধ হবে। এই ক্রোয়েট মিডফিল্ডারের দুর্দান্ত পাস থেকেই বল জালে জড়ান বেনজেমা।

এগিয়ে থেকে দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরু করা রিয়াল মাদ্রিদ দ্বিতীয়ার্ধে অতিথিদের আরও চেপে ধরে। ৫৪ মিনিটে তোরেসের বাড়ানো বলে কার্বাহালের শটে রক্ষা পায় ভিয়ারিয়াল। ম্যাচের ৭৩তম মিনিটে পেনাল্টি আদায় করেন রামোস। প্রথমবার পেনাল্টি শট ঠিকঠাক হয়নি। বলে টোকা দেন রামোস। ছুটে এসে শট নিয়ে বল জালে জড়ান বেনজেমা। তবে বলে পা ছোঁয়ানোর আগে বেনজেমা বক্সে ঢুকে পড়ায় সেই গোল বাতিল হয়। দ্বিতীয় সুযোগ পায় রিয়াল। এবার বল জালে জড়িয়ে জোড়া গোল পূরণ করেন ফরাসি তারকা।

জিদান জাদুতেই শিরোপা ঘরে তুলল রিয়াল। ছবি: এএফপি

খানিক বাদেই ব্যবধান বাড়াতে পারত রিয়াল মাদ্রিদ। টনি ক্রুসের ওই শট বারে লাগায় নিশ্চিত গোল হজমের হাত থেকে রক্ষা পায় অতিথিরা। ম্যাচের ৮৩ মিনিটে আশা জাগিয়ে তোলে ভিয়ারিয়াল। দুর্দান্ত এক হেডে বল জালে জড়ান ইবোরা। মিনিট পাঁচেক পর সমতায়ও ফিরতে পারত তারা। তবে সে সুযোগ হারিয়ে আর খেলায় ফেরা হয়নি ভিয়ারিয়ালের।

শেষ পর্যন্ত শিরোপা উল্লাসে মেতে ওঠে রিয়াল মাদ্রিদ। নিজেদের মুকুটে যোগ করে সফলতার আরও একটি পালক।

একই সময়ে লা লিগার আরেক ম্যাচে হেরেছে বার্সেলোনা। ন্যু ক্যাম্পে ওসাসুনার বিপক্ষে মেসিরা হেরেছে ২–১ গোলে। আসরে এটি তাদের ষষ্ঠ পরাজয়। ৩৭ ম্যাচে ২৪ জয়ে ৭৯ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে থেকেই মৌসুম শেষ করল কাতালানরা। আর রিয়াল মাদ্রিদ সমান ম্যাচ খেলে হেরেছে তিন ম্যাচ। ২৬ ম্যাচ জয়ে রিয়ালের সংগ্রহ ৮৬ পয়েন্ট। অথচ করোনার ধাক্কার পর আবার লিগ শুরু হলে বার্সেলোনার চেয়ে ২ পয়েন্ট পিছিয়ে ছিল রিয়াল। এবার ১০ ম্যাচের সব কটিই জিতেছে জিদান শিষ্যরা। জিদানের অধীনে রিয়ালের এটি ১১তম শিরোপা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে