রিপাবলিকান পার্টি থেকে ট্রাম্প নাকি হ্যালি, ‘সুপার টুইসডে’ ঠিক করে দেবে

0
56
ডোনাল্ড ট্রাম্প ও নিকি হ্যালি

রিপাবলিকান পার্টি থেকে মনোনয়ন নিশ্চিত করার বিষয়টি আগামী মঙ্গলবার অনুষ্ঠেয় প্রাইমারি বা প্রাথমিক বাছাইয়ের ফলের ওপর নির্ভর করছে। এদিন ১৬টি রাজ্যে প্রাথমিক বাছাই হবে। একাধিক রাজ্যে বাছাই অনুষ্ঠিত হবে বলে দিনটিকে মার্কিন নির্বাচন প্রক্রিয়ায় ‘সুপার টুইসডে’ হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়।

৫ মার্চ ক্যালিফোর্নিয়া, আলাবামা, আলাস্কা, নর্থ ক্যারোলাইনা, টেনেসি, টেক্সাস, ম্যাসাচুসেটসসহ ১৬টি রাজ্যে রিপাবলিকান দলের প্রাথমিক বাছাই হবে। আগামী নভেম্বরের নির্বাচনে হোয়াইট হাউসে যাওয়ার লড়াইয়ে ‘সুপার টুইসডে’ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই ১৬ রাজ্যের মধ্যে আবার নর্থ ক্যারোলাইনা ‘সুইং স্টেট’ বা দোদুল্যমান রাজ্য হিসেবে পরিচিত।

২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এই অঙ্গরাজ্য থেকে মাত্র ১ দশমিক ৩ শতাংশ বা ৭৫ হাজার ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি যেসব অঙ্গরাজ্যে জিতেছিলেন, তার মধ্যে এই রাজ্যে ব্যবধান ছিল সবচেয়ে কম।

নর্থ ক্যারোলাইনার প্রাইমারিতে ট্রাম্প প্রতিদ্বন্দ্বী নিকি হ্যালির চেয়ে অনেকটাই এগিয়ে। তবে এখানে নিকি হ্যালির পারফর‍ম্যান্সের দিকেও দেখতে হবে, যাতে ট্রাম্প তাঁর দুর্বলতাগুলোর দিকে নজর দিতে পারেন।

নর্থ ক্যারোলাইনা–গ্রিনসবরো বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক থম লিটল বলেন, মধ্যপন্থী ও নিরপেক্ষ ভোটারদের দিকে নজর রাখতে হবে ট্রাম্পের। এ রাজ্যের নির্বাচনী নিয়ম অনুযায়ী, যাঁরা কোনো দলের সঙ্গ যুক্ত নন, তাঁরা রিপাবলিকান প্রার্থীকে প্রাইমারিতে ভোট দিতে পারেন। এই ভোটাররা নিকি হ্যালির শক্তি। নিউ হ্যাম্পশায়ার ও সাউথ ক্যারোলাইনায় প্রায় ৪০ শতাংশ ভোট পেয়ে তা দেখিয়েছেন নিকি।

সাউথ ক্যারোলাইনায় প্রাথমিক হারের পরও নিকি লড়াই চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। ট্রাম্পের প্রচারশিবিরের পক্ষ থেকে আশা করা হচ্ছে, ১২ মার্চের মধ্যে মনোনয়ন নিশ্চিত করে ফেলবেন তিনি।

টম লিটল বলেন, ‘যাঁরা নিকিকে ভোট দেবেন, তাঁরা আগামী নভেম্বরে ট্রাম্পকে ভোট দেবেন, নাকি ঘরে বসে থাকবেন, নাকি দল পাল্টে বাইডেনকে সমর্থন করবেন, সেই সিদ্ধান্ত খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

বাইডেন ও ট্রাম্পের প্রচারশিবির থেকে এই ভোটারদের লক্ষ্যবস্তু বানানো হচ্ছে। নিবন্ধিত ডেমোক্র্যাট বা রিপাবলিকানদের চেয়ে ভাসমান এসব ভোটার এখন তাঁদের কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, দক্ষিণের রাজ্যগুলোয় এই ভোটারদের সংখ্যা বেশি।

লিটলের মতে, এই রাজ্যে রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাট—উভয় শিবিরই বেশি সময় ও অর্থ ব্যয় করবে।

সর্বশেষ ২০০৮ সালে বারাক ওমাবা ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিসেবে এই রাজ্যে জিতেছিলেন। প্রাথমিক জরিপে দেখা গেছে, নর্থ ক্যারোলাইনার বাইডেনের চেয়ে এগিয়ে রয়েছেন ট্রাম্প।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.