রাহুল বা রাজকে লাথি দিতে বললেন শাহরুখ

0
356
বাবা শাহরুখ খান আর মা গৌরী খানের সঙ্গে সুহানা খান।

বড় পর্দার রাহুল বা রাজ। এই দুটি নাম শুনলে মনে যাঁর ছবি ভেসে উঠবে, তিনি বলিউডের বাদশাহ শাহরুখ খান। কত ছবিতে যে তিনি রাহুল আর রাজ হয়েছেন, তার ইয়ত্তা নেই। পর্দার এই রাহুল বা রাজকে দেখে আপনার মনে হয়েছে, সে আদর্শ প্রেমিক। যদি তা-ই মনে হয়, তাহলে ভুল ভেবেছেন। রাহুল বা রাজ যা যা করেছেন, তাতে সিনেমা হিট হতে পারে, কিন্তু তা মোটেও কোনো ভদ্রলোকের কাজ নয়!

কে বললেন এ কথা? শাহরুখ খান নিজেই বলেছেন। ফিল্মফেয়ারকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে। তাঁকে বলা হয় ‘কিং অব রোমান্স’। আর এই উপাধির পেছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে ‘রাজ’ আর ‘রাহুল’। শাহরুখ চান, তাঁর মেয়ে তাঁর মতো কোনো পুরুষকে জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিক। কিন্তু মোটেই পর্দায় তাঁর চরিত্রগুলোর মতো নয়। শাহরুখ তাঁর মেয়েকে সাফ বলে দিয়েছেন, ‘কোনো পুরুষ যদি তোমার সঙ্গে রাজ বা রাহুলের মতো ‘খারাপ’ আচরণ করে, তাহলে তাঁকে লাথি মারো।’

শাহরুখ খান ও সুহানা খান।

শাহরুখ আরও বলেন, ‘আমার মেয়েকে বলে দিয়েছি, যদি কোনো ছেলে এসে বেশ ভাব নিয়ে বলে, “আমি রাহুল, নাম তো শুনেছ নিশ্চয়ই।” সে একজন উত্ত্যক্তকারী। পার্টিতে সে যদি তোমার আশপাশে ঘুরঘুর করে আর বলে, “আরও কাছে, আরও কাছে!” তাহলে তার পায়ে জোরে একটা লাথি মারবে। কিন্তু ছবিতে আমাকে খুব সরলভাবে এই দৃশ্যগুলো আকর্ষণীয় করে ফুটিয়ে তুলতে হয়েছে।’

প্রেম নিয়ে শাহরুখ খান কী ভাবেন? বললেন, ‘প্রেম অন্য রকম অনুভূতি। যেখানে মহাকালকে মনে হয় মুহূর্ত বা মুহূর্তকে মহাকাল। ব্যক্তিগতভাবে আমি মোটেও রাজ বা রহুলদের মতো কেউ নই। আমি যদি দুই হাত দুই দিকে মেলে ধরে গান গাই, আর প্রেম নিবেদন করি, তো বউ আমাকে বাড়ি থেকে বের করে দেবে।’

শাহরুখ খান। ছবি: ইনস্টাগ্রাম থেকে নেওয়া

আজ বিশ্ব কন্যা দিবস। এই বিশেষ দিনে একমাত্র মেয়ে সুহানাকে আরও একবার শাহরুখ মনে করিয়ে দেন, রাহুল বা রাজদের থেকে ১০০ হাত দূরে থাকতে হবে। কারণ, রাহুল বা রাজ যা করছে, তা আর যা-ই হোক, কোনো ভদ্রলোকের কাজ না।

সুহানা খান এখন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে পড়াশোনা করছেন। তিনি অভিনয়শিল্পী হতে চান। কিন্তু বাবার মতো নয়। সুহানা খানের ইচ্ছা, তিনি সুপারস্টার শাহরুখ খানের মতো নন, বরং তাঁর নিজের মতো অভিনয় করবেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে