রাজনৈতিক ছত্রচ্ছায়ায় দেশে ব্যাপক লুটপাট চলছে: গয়েশ্বর

0
234
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। ফাইল ছবি

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, ক্যাসিনো ব্যবসার আড়ালে ক্ষমতাসীন দলের লোকজন হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার করছেন। রাজনৈতিক ছত্রচ্ছায়ায় দেশে ব্যাপক লুটপাট চলছে। যুবদলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আজ রোববার বগুড়া শহরের নওয়াব বাড়ি সড়কে দলটির কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত সভায় এ কথা বলেন তিনি।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, সরকার ১২ বছর ধরে বিভিন্নভাবে দেশের মানুষের ওপর নির্যাতন করে আসছে। বগুড়ার মতো স্থানে যুবদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করতে হয় রাস্তার ওপর ছোট্ট মঞ্চ করে। প্রশাসনের বাধার কারণে যুবদল বাইরে কোনো ফাঁকা মাঠে অনুষ্ঠান করতে পারছে না। প্রশাসননির্ভর এই সরকার। জনগণের ওপর কোনো আস্থা নেই তাদের। দেশের কোথাও স্বাধীনতা নেই। গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নেই। কেউ স্বাধীনভাবে কথা বলতে পারে না। সংবাদপত্রের মালিকদের ব্ল্যাকমেল করা হচ্ছে। সংবাদপত্র শুধু সরকারের গুণগান করতে পারবে। আর ভাড়াটে বুদ্ধিজীবীরা শুধু সরকারের পক্ষে কথা বলতে পারবে।

খালেদা জিয়াকে গণতন্ত্রের নেত্রী উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘যে নেত্রী গণতন্ত্র উদ্ধার করেছিলেন, তাঁর নাম বাংলাদেশের মানুষের হৃদয়ে লেখা। তিনি হলেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। আজকে তাঁকে মিথ্যা মামলায় কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে। অথচ কোটি কোটি টাকা লুটপাটকারীরা আজকে প্রধানমন্ত্রীর দুই পাশে অবস্থান করছে। কাউকে কাউকে আবার পুরস্কৃত করা হয়েছে।’

আওয়ামী লীগ সরকার ভোট চুরি করে ক্ষমতা এসেছে দাবি বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, ‘২০১৪ সাল থেকে শুরু করে ভোট চুরির মাধ্যমে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে। এই চুরিতে পুলিশকে কাজে লাগিয়েছে। অথচ পুলিশের কাজই ছিল চোর ধরা।’

গয়েশ্বর চন্দ্র বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে আদালতের দিকে তাকিয়ে থেকে লাভ নেই। রাজপথে নামতে হবে। আন্দোলন করতে হবে। গণতন্ত্র ফিরে না আসা পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যেতে হবে। দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে হবে আন্দোলনের মাধ্যমে। আঘাত করলে ঘরে চুপ থাকার সময় আর নেই। এখন সময় এসেছে পাল্টা আঘাতের। আন্দোলন-সংগ্রাম করতে না পারলে জনগণ আমাদের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নেবে।’

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও বগুড়া-৬ (সদর) আসনের সাংসদ গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ (জি এম সিরাজ)। তিনি বলেন, এই সরকার দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করে দিয়েছে। আজকে দেশে শুধু আওয়ামী লীগ নয়, তাদের দোসররাও সম্পদ ধ্বংস করে দিয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের কোটি কোটি টাকা লুট করেছে।

জেলা যুবদলের আহ্বায়ক খাদেমুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মাহবুবর রহমান, হেলালুজ্জামান তালুকদার, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ফজলুল বারী তালুকদার, জাহাঙ্গীর আলম, সদস্য রেজাউল করিম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আলী আজগর তালুকদার, এম আর ইসলাম প্রমুখ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.