পোশাকের উপযুক্ত মূল্য নিশ্চিত করা প্রয়োজন

0
43
প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার (সিইও) সঙ্গে বৈঠকে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি এবং প্রধানমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড প্রাইমার্কের সফররত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার (সিইও) সঙ্গে বৈঠকে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি এবং প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান দুজনেই বাংলাদেশ থেকে রপ্তানি হওয়া তৈরি পোশাকের উপযুক্ত মূল্য নিশ্চিত করা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন। বুধবার সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে প্রাইমার্কের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পাউল মার্চেন্টের নেতৃত্বে বিশ্বখ্যাত তৈরি পোশাক ব্র্র্যান্ড প্রাইমার্ক অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটসের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে এ বৈঠক হয়। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়েছে।

টিপু মুনশি বলেন, বাংলাদেশ পৃথিবীর মধ্যে দ্বিতীয় বৃহত্তম পোশাক রপ্তানিকারক দেশ। চল্লিশ লাখের বেশি শ্রমিক এ শিল্পে কর্মবান্ধব পরিবেশে কাজ করছে। এর মধ্যে প্রায় ৬৫ ভাগই নারী শ্রমিক। বাংলাদেশ গত বছর ৪২ বিলিয়ন ডলারের তৈরি পোশাক রপ্তানি করেছে। বাংলাদেশ এখন চাহিদা মোতাবেক যে কোনো পরিমাণ পণ্য যথাসময়ে সরবরাহ করার সক্ষমতা অর্জন করেছে। তিনি বলেন, প্রাইমার্ক বাংলাদেশের পোশাকের বড় ক্রেতা। বিশ্বখ্যাত এ ব্র্র্যান্ড বাংলাদেশ থেকে আরও বেশি তৈরি পোশাক কিনবে বলে তার বিশ্বাস। একই সঙ্গে এ শিল্প টিকিয়ে রাখতে এবং উৎসাহ দিতে তৈরি পোশাকের উপযুক্ত মূল্য নিশ্চিত করা প্রয়োজন।

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান বলেন, প্রতিযোগিতামূলক বিশ্ববাণিজ্যে বাংলাদেশ দক্ষতার সঙ্গে এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ যে কোনো সময়ের চেয়ে বর্তমানে বিশ্বমানের ও আধুনিক তৈরি পোশাক তুলনামূলক কম দামে সরবরাহ করতে সক্ষম। কভিড-১৯ পরিস্থিতিতে অনেক ক্রেতা ক্রয় আদেশ বাতিল করার কারণে রপ্তানিকারকরা ক্ষতির মুখে পড়েন। তবে সরকারের সহযোগিতায় এ শিল্পসহ দেশের অর্থনীতির চাকা চলমান ছিল। তিনি মনে করেন, বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করা প্রয়োজন।

প্রাইমার্কের সিইও বলেন, বাংলাদেশ বাণিজ্য ক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বাংলাদেশ তৈরি পোশাক খাতে অনেক উন্নতি করেছে। পরিবেশবান্ধব এবং কর্মবান্ধব ব্যবস্থায় পণ্য উৎপাদন করছে। শিল্প ক্ষেত্রে প্রযুক্তির ব্যবহার আরও বেশি আকর্ষণীয় করেছে।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন বেক্সিমকো গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ নাভেদ হোসেইন, এবিএফের পরিচালক ও কোম্পানি সেক্রেটারি পাউল লিস্টার, এবিএফের গ্রুপ করপোরেট রেসপনসিবিলিটি ডাইরেক্টর কাথারিন স্টিওয়ার্ট, ইকোলক বোর্ডের নির্বাহী চেয়ারম্যান জুয়ান চাপারো, প্রাইমার্কের হেড অফ পলিসি অ্যান্ড পাবলিক অ্যাফেয়ার্স ইম্মা অরমন্ড, হেড অব সোর্সিং মাদিউ আরহোডস প্রমুখ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.