তামিম-জয়ে খুলনার গর্জে ওঠা জয়

0
43
তামিম-জয়ে খুলনার গর্জন

চার ম্যাচে খুলনা টাইগার্সের জয় ছিল মাত্র একটি। শুক্রবার তামিম ইকবাল-ইয়াসির রাব্বির দলটি দ্বিতীয় জয়ের দেখা পেল। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে ৭ উইকেটের গর্জে ওঠা জয়ে দলটি কোয়ালিফায়ারের লড়াইয়ে ফিরেছে। রংপুর, চট্টগ্রামের সমান তাদেরও জয় এখন দুটি।

দলকে জয় এনে দিতে দারুণ ব্যাটিং করেছেন আন্তর্জাতিক টি-২০ থেকে বিদায় নেওয়া তামিম ইবকাল। তিনি ফিফটি মিস করলেও জাতীয় দলে নিয়মিত হওয়ার লড়াইয়ে থাকা তরুণ মাহমুদুল হাসান জয় ফিফটি পেয়েছেন। আর অধিনায়ক ইয়াসির রাব্বি ঝড়ো এক ইনিংসে ফিনিশিং টেনেছেন।

টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় খুলনা। ব্যাটে নেমে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ওপেনার ম্যাক্স ওডাউডকে হারালেও উসমান খান এবং আফিফ হোসেন রান পান। ওপেনার উসমান ৩১ বলে ৪৫ রানের ইনিংস খেলেন। তার ব্যাট থেকে সাতটি চার ও একটি ছক্কার শট আসে।

তিনে নামা আফিফ ৩১ বলে ৩৫ রান করেন। একটি চার ও একটি ছক্কা মারেন বাঁ-হাতি এই ব্যাটার। এছাড়া ডারউইস রসুলি ২৫ রান করেন। ৯ বলে ২১ রানের ইনিংস খেলেন পেস অলরাউন্ডার ফরহাদ রেজা। তাদের ছোট ছোট ইনিংসে ভর করে ৯ উইকেটে ১৫৭ রান তোলে চট্টগ্রাম।

জবাব দিতে নেমে শূন্য করে ফিরে যান খুলনার মুনিম শাহরিয়ার। এরপর ১০৪ রানের জুটি গড়েন তামিম ইকবাল ও মাহমুদুল জয়। তামিম ৩৭ বলে ৪৪ রান করেন। চারটি চার ও একটি ছক্কা তোলেন। তরুণ জয় ৪৪ বলে ৫৯ রানের ইনিংস খেলেন। তার ব্যাট থেকে পাঁচটি চার ও একটি ছক্কা আসে। ওই জুটিতেই জয়ের পথে এগিয়ে যায় খুলনা।

পরে আজম খান ১৬ বলে ১৫ এবং ইয়াসির রাব্বি চারটি ছক্কা ও দুটি চারে ১৭ বলে ৩৬ রান করে চার বল থাকতে জয় তুলে নেন। খুলনার হয়ে বুড়ো পাকিস্তানী পেসার ওয়াহাব রিয়াজ ৪ ওভারে ৩৬ রান দিয়ে নেন ৪ উইকেট। বাংলাদেশি পেস অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিন ৪ ওভারে ৪০ রান দিয়ে নেন দুই উইকেট।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.