‘ঢাকা-দিল্লি নিরাপত্তা সহযোগিতা জোরদার হয়েছে’

0
335

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদির দিকনির্দেশনায় বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক সুদৃঢ় হয়েছে এবং একটা নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে। ২০১৭ সালে শেখ হাসিনার ভারত সফরকালে দুই দেশের মধ্যে ৫টি প্রতিরক্ষা সহযোগিতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। উভয় দেশ পারস্পরিক নিরাপত্তা সহযোগিতা জোরদার করেছে।

নয়াদিল্লির ন্যাশনাল ডিফেন্স ৫৯তম এনডিসি কোর্সে অংশগ্রহণকারী অফিসারদের উদ্দেশে শুক্রবার বক্তৃতাকালে ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী এ কথা বলেন। তিনি ‘ফ্রেমওয়ার্ক অব বাংলাদেশ-ইন্ডিয়া রিলেশন্স :অপরচুনিটিজ অ্যান্ড চ্যালেঞ্জেস’ বিষয়ে বক্তৃতা করছিলেন।

৪৭ সপ্তাহের এই কোর্সে ভারতের অফিসার ছাড়াও আফগানিস্তান, অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ, ভুটান, ব্রাজিল, মিসর, ইন্দোনেশিয়া, জাপান, কেনিয়া, মালয়েশিয়া, মঙ্গোলিয়া, মিয়ানমার, নেপাল, নাইজেরিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলংকা, সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই), যুক্তরাজ্য (ইউকে), যুক্তরাষ্ট্র (ইউএসএ) ও ভিয়েতনাম থেকে ২৫ জন বিদেশি অফিসার অংশ নেন।

সৈয়দ মোয়াজ্জেম বলেন, বাংলাদেশ ও ভারত নিরাপত্তা, পারস্পরিক বিশ্বাস, আস্থা সৃষ্টি এবং বাস্তব ও জনগণ পর্যায়ে যোগাযোগ বাড়ানোর ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে। ঢাকা-দিল্লির দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক এতই আন্তরিক যে, প্রতিবেশী কূটনীতির জন্য এটা একটা রোল মডেল হয়ে উঠেছে।

শেখ হাসিনা ঘনিষ্ঠ দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে পারস্পরিক আস্থা ফিরিয়ে এনেছেন উল্লেখ করে হাইকমিশনার বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাংলাদেশ ও ভারত তাদের দ্বিপক্ষীয় প্রতিরক্ষা সম্পর্ক দৃঢ়ভাবে উন্নত করেছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.