ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় ত্রাণ–সহায়তায় পর্যাপ্ত খাদ্য মজুত আছে: খাদ্যমন্ত্রী

0
189
সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। আজ রোববার দুপুরে নওগাঁ সার্কিট হাউস চত্বরে।

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় দুর্গতদের ত্রাণ–সহায়তা দিতে যথেষ্ট খাদ্য মজুত আছে। চাহিদাপত্র পাওয়ামাত্রই দ্রুত ত্রাণ সরবরাহ করতে কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আজ রোববার দুপুরে নওগাঁ সার্কিট হাউস মিলনায়তনে স্থানীয় আওয়ামী লীগের একটি অনুষ্ঠানে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় জেলা প্রশাসক হারুন-অর-রশিদ, পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান মিয়াসহ স্থানীয় প্রশাসনিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, দেশ বর্তমানে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। বর্তমানে সরকারি গুদামে প্রায় সাড়ে ১৩ লাখ মেট্রিক টন চাল ও গম মজুত রয়েছে। ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় ত্রাণ–সহায়তা দেওয়ার জন্য পর্যাপ্ত খাদ্য মজুত আছে। চাহিদাপত্র পাওয়ামাত্রই দ্রুত ত্রাণ–সহায়তার জন্য খাদ্য সরবরাহ করতে কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া চলমান দুর্যোগ পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত দুর্গত অঞ্চলে খাদ্য বিভাগে কর্মরত সবার ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, সৃষ্টিকর্তার রহমতে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল খুব বেশি ক্ষতি করতে পারেনি। তারপরও যেটুকু ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় এবং খাদ্য মন্ত্রণালয় মিলে স্থানীয় কর্মকর্তাদের নিয়ে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.