ক্ষতিকর ট্রান্স ফ্যাট গ্রহণ করছে ৫০০ কোটি মানুষ: ডব্লিউএইচও

0
42
প্রক্রিয়াজাত পণ্যে প্রচুর পরিমাণে স্যাচুরেটেড ও ট্রান্স ফ্যাট থাকে। ছবি- দ্য গার্ডিয়ান থেকে নেওয়া।

বিশ্বের ৫০০ কোটি মানুষ বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্যের মাধ্যমে ক্ষতিকর ট্রান্স ফ্যাট বা ট্রান্স ফ্যাটি এসিড গ্রহণ করছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। আজ সোমবার সংস্থাটি এ তথ্য জানায়। খবর এএফপির।

ডব্লিউএইচও বলছে, প্রতি বছর করোনারি হৃদরোগে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়। এজন্য দায়ী ট্রান্স ফ্যাট। ২০১৮ সালে আহ্বান জানানো হয়েছিল, ২০২৩ সালের মধ্যে এই ক্ষতিকারক দ্রব্যটি নির্মূল করতে হবে। ৪৩টি দেশের মোট ২৮০ কোটি মানুষ খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তনের চেষ্টা করছে। তবে বেশিরভাগই খাদ্যসচেতন নয়।

একটি বার্ষিক প্রতিবেদনে দেখা গেছে, খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তনের চেষ্টা কিংবা ‘সর্বোত্তম খাদ্যাভ্যাস নীতি’ মানার বিষয়টি চোখে পড়ার মতো নয়। তাই শিল্প-উৎপাদিত খাদ্যে ক্ষতিকর চর্বি দূর করার চেষ্টা আরও দীর্ঘদিন চালিয়ে যেতে হবে।

সংস্থাটির মহাপরিচালক টেড্রোস আধানম গেব্রিয়াসুস বলেন, ট্রান্স ফ্যাটে আহামরি কোনো উপকার নেই। এটি স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ঝুঁকিপূর্ণ, যা স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনার খরচ বাড়িয়ে দেয়। তবে ট্রান্স ফ্যাট এড়িয়ে চলতে কোনো খরচ নেই এবং এটি স্বাস্থ্যের জন্যে ভালো।

প্যাকেটজাত খাবার, বেকড পণ্য ও ভোজ্যতেলে হরহামেশাই ট্রান্স ফ্যাট ব্যবহার করা হয়। ডব্লিউএইচও মহাপরিচালক বলছেন, খাদ্যদ্রব্যে এর কোনো জায়গা থাকা উচিত না। এটি পরিহারের সময় এসেছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.