কানাডা যাচ্ছেন মুহিবুল্লাহর পরিবারের আরও ১০ সদস্য

0
49
মুহিবুল্লাহর পরিবারের আরও ১০ জন স্বজন কানাডার উদ্দেশে ক্যাম্প ত্যাগ করেছেন।

কক্সবাজারে শরণার্থী শিবিরে সন্ত্রাসীদের হাতে নিহত রোহিঙ্গাদের শীর্ষ নেতা মুহিবুল্লাহর পরিবারের আরও ১০ জন স্বজন কানাডার উদ্দেশে ক্যাম্প ত্যাগ করেছেন।

সোমবার সকালে উখিয়ার কুতুপালং ট্রানজিট পয়েন্ট থেকে মুহিবুল্লাহর পরিবারের ওই ১০ সদস্য ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন।

এ নিয়ে তৃতীয় দফায় তার পরিবারের সদস্যরা কানাডা যাচ্ছেন। এর আগে মুহিবুল্লাহর পরিবারসহ দুই দফায় আরও ২৫ জন কানাডায় পাড়ি জমিয়েছেন।

নাম না প্রকাশের শর্তে উচ্চ পর্যায়ের এক সরকারি কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মুহিবুল্লাহর মেয়ের জামাই নওখিমের স্বজন রশিদ উল্লাহ ও মো. সেলিমের দুই পরিবারের ১০ সদস্য কানাডার উদ্দেশে ক্যাম্প ত্যাগ করছেন। এখানকার প্রক্রিয়া শেষে তাদের ঢাকার উদ্দেশে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে তাদের কানাডায় রওনা দেওয়ার কথা রয়েছে।

শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার (আরআরআরসি) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, তৃতীয় দফায় মুহিবুল্লাহর আরও কিছু স্বজন কানাডা যাচ্ছেন। তারা ক্যাম্প ত্যাগ করেছেন।

ক্যাম্পে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা ৮-আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক (অতিরিক্ত ডিআইজি) আমির জাফর বলেন, মুহিবুল্লাহর পরিবারের কিছু সদস্যকে উখিয়া ট্রানজিট পয়েন্ট থেকে ঢাকার উদ্দেশে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এরপর তাদের কোথায় নেওয়া হবে, সেই বিষয়টি আমার জানা নেই।

উখিয়া ট্রানজিট পয়েন্টের বাসিন্দা রোহিঙ্গা মো. জিয়াবুল হক বলেন, কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে মুহিবুল্লাহর মেয়ের জামাই নওখিমের বড় ভাইয়ের মো. সেলিমে ও রশিদ উল্লাহসহ দুই পরিবারের ১০ সদস্যকে কানাডা নেওয়ার কথা বলে ক্যাম্প থেকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্পে নিজ কার্যালয়ে সন্ত্রাসীদের গুলিতে শীর্ষস্থানীয় রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ নিহত হন। এরপর তার পরিবারের সদস্যদের ক্যাম্প থেকে সরিয়ে উখিয়া ট্রানজিট পয়েন্টে কঠোর নিরাপত্তায় রাখা হয়। একইসঙ্গে তাদের তৃতীয় কোনো দেশে পাঠানোর আলোচনা শুরু হয়। এরই অংশ হিসেবে তাদের কানাডায় নিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.