ইউক্রেনকে প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র দিতে পোল্যান্ডের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান জার্মানির

0
34
প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্রব্যবস্থা,রয়টার্স ফাইল ছবি

গত সপ্তাহে পোল্যান্ডের ভূখণ্ডে একটি ক্ষেপণাস্ত্র পড়ে। এতে দুজন নিহত হন। এই ঘটনার পর দেশটির আকাশসীমার সুরক্ষায় ওয়ারশকে প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষাব্যবস্থা পাঠানোর প্রস্তাব দেয় বার্লিন।

গত বুধবার পোলিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী মারিউস ব্লাসজ্যাক বলেন, ওই ক্ষেপণাস্ত্রব্যবস্থা তাঁর দেশের বদলে ইউক্রেনে পাঠাতে তিনি জার্মানিকে অনুরোধ করেছেন।

মারিউস এক টুইটার পোস্টে লিখেছেন, ‘আরও রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর আমি জার্মানিকে বলেছি, পোল্যান্ডের জন্য যে প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্রব্যবস্থা পাঠানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে, তা যেন ইউক্রেনে পাঠানো হয়। এই ক্ষেপণাস্ত্রব্যবস্থা যেন দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় সীমান্তে মোতায়েন করা হয়।’

তবে গতকাল বৃহস্পতিবার বার্লিনে জার্মান প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টিন ল্যামব্রেখট বলে দিয়েছেন, তাঁরা পোল্যান্ডের এই প্রস্তাব মানতে পারছেন না।

জার্মান প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, এই প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র ন্যাটোর সমন্বিত আকাশ প্রতিরক্ষার অংশ। এর মানে হলো এগুলো ন্যাটো জোটের আওতাধীন এলাকায় মোতায়েন করতে হবে। ন্যাটোভুক্ত এলাকার বাইরে এই ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করতে হলে আগে জোট ও মিত্রদের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে।
ইউক্রেন ন্যাটোর সদস্য রাষ্ট্র নয়।

স্নায়ুযুদ্ধের সময় ন্যাটোর সম্মুখসারির সদস্য জার্মানির কাছে ৩৬টি প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্রব্যবস্থা ছিল। এই সংখ্যা কমে এখন ১২টিতে দাঁড়িয়েছে। তার মধ্যে দুটি স্লোভাকিয়ায় মোতায়েন রয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.