আম্পায়ারিং নিয়ে অসন্তুষ্ট হৃদয়, তুললেন প্রশ্ন

0
15
তাওহীদ হৃদয়।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে নিউ ইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামে ৪ রানে হেরেছে বাংলাদেশ। প্রোটিয়াদের ১১৩ রানে আটকে রাখে বাংলাদেশ। লক্ষ্য তাড়ায় নেমে ৭ উইকেটে ১০৯ রানে আটকে যায় বাংলাদেশ।

এই হারের পেছনে আম্পায়ারের দায় দেখছেন তাওহীদ হৃদয়। ব্যাট হাতে দুই চার ও ছক্কায় ৩৪ বলে ৩৭ রানের ইনিংস খেলা হৃদয়ের মতে, আরও ভালো আম্পায়ারিংয়ের সুযোগ ছিল। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের লেগ বিফোর চার হলে, দুই-তিনটা বল ওয়াইড হতে পারত, তা দিলে; এমনকি তার লেগ বিফোর আউটটা না দিলে তারা জিততে পারত।

ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের হৃদয় বলেন, ‘সত্যি বলতে, ওমন কঠিন সময়ে ওটা (রিয়াদকে লেগ বিফোর দেওয়া) ভালো সিদ্ধান্ত বলতে পারছি না। এটা হয়তো আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত, কিন্তু এটা আমাদের জন্য খুব কঠিন ধাক্কা হয়ে এসেছে। ওই চার রানটা হলে ম্যাচের চিত্র বদলে যেতে পারতো।’

হৃদয় আইন বোঝেন না। তিনি শুধু বোঝেন দলের জন্য ওই চার রান গুরুত্বপূর্ণ ছিল, ‘আইন আমার হাতে নেই। আমি শুধু বুঝি, ওই চার রান আমাদের জন্য খুব দরকার ছিল। আম্পায়াররাও মানুষ, তারাও ভুল করেন। তারা দুই-তিনটা ওয়াইড দেননি, যেটা ওয়াইড হতে পারত। ওমন লো স্কোরির ম্যাচে ওই এক-দুইটা রান পার্থক্য গড়ে দেয়। আমিও আম্পায়ার্স কলে আউট হয়েছি। আমি মনে করি, আম্পায়ারিংয়ে উন্নতির জায়গা ছিল।’

হৃদয় হারের দায় নিজের কাঁধে নিয়েছেন। তার মতে, ম্যাচটা তাদের জেতা উচিত ছিল। জেতার মতো অবস্থানেও ছিলেন তারা। শুধু তিনি শেষ টেনে আসতে পারলেই হতো, ‘আমরা জয়ের বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী ছিলাম। আমার ম্যাচটা শেষ করে আসা উচিত ছিল। নতুন ব্যাটারের জন্য কন্ডিশন বুঝে খেলা কঠিন ছিল। ওই অবস্থান থেকে ম্যাচটা আমার শেষ করে আসতে হতো।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.