২০ অক্টোবর খুলতে পারে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

0
36
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

আরেক সিন্ডিকেট সদস্য মো. নাসিম হাসান বলেন, ‘সভায় ক্যাম্পাস খোলার বিষয়ে প্রাথমিক আলোচনা হয়েছে। তবে আনুষ্ঠানিক কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। অ্যাজেন্ডাও ছিল না।’

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪৮টি বিভাগ ও ৬টি ইনস্টিটিউট মিলিয়ে শিক্ষার্থীর সংখ্যা সাড়ে ২৭ হাজারের মতো। কারা টিকা দিয়েছেন, কয় ডোজ দিয়েছেন, সে তথ্য এখন সংগ্রহ করছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। আইসিটি সেল সূত্র বলছে, ২৪ হাজার শিক্ষার্থী টিকার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে নিবন্ধন করেছেন। ইতিমধ্যে ১৩ হাজার ৫২০ শিক্ষার্থী টিকাসংক্রান্ত তথ্য দিয়েছেন।

তাঁদের মধ্যে দুই ডোজ নিয়েছেন ৪ হাজার ২৩১ জন। এক ডোজ নিয়েছেন ২ হাজার ৩৭৯ জন। নিবন্ধন করে টিকার জন্য অপেক্ষা করছেন ৪ হাজার ৫২৯ জন। আর জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকা ও জাতীয় পরিচয়পত্রে ভুল থাকায় নিবন্ধন করতে পারেননি ২ হাজার ৩৭৯ জন। বাকি শিক্ষার্থীরা এখনো টিকাসংক্রান্ত তথ্য দেননি। বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য বেনু কুমার দের তত্ত্বাবধানে বিভিন্ন বিভাগ থেকে টিকাসংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।

সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক কাজী এস এম খসরুল আলম কুদ্দুসী বলেন, ৪৮ হাজার ডোজ করোনার টিকা পেতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে। আশা করা যাচ্ছে, এসব টিকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পাবে। যাঁরা টিকা পাননি, তাঁদের বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসাকেন্দ্রেই এসব টিকা দেওয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে