১৪-১৫ লাখ লোক বাংলাদেশকে ফিরিয়ে নিতে বলা হবে: আসামের অর্থমন্ত্রী

0
554
হিমন্ত বিশ্ব শর্মা

ভারতের আসামের নাগরিকপঞ্জির (এনআরসি) চূড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন ১৯ লাখের বেশি মানুষ। রাজ্যটির অর্থমন্ত্রী জ্যেষ্ঠ বিজেপি নেতা হিমন্ত বিশ্ব শর্মা বলেছেন, ‘চূড়ান্ত তালিকায় ১৪-১৫ লাখ বিদেশি চিহ্নিত হয়েছে। বাংলাদেশকে তাদের ফিরিয়ে নিতে বলা হবে।’

নাগরিকপঞ্জির চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের একদিন পর রোববার ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম নিউজ এইটটিনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে একথা বলেন হিমন্ত বিশ্ব শর্মা।

বাদ পড়াদের মানবাধিকার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমাদের বহু মানুষের আধার কার্ড রয়েছে। …কোনো মানবাধিকার লঙ্ঘন করা হবে না। আমরা বাংলাদেশের সঙ্গে যোগাযোগ করব; তাদের ফিরিয়ে নিতে বলব। তবে এই সময়ের মধ্যে তারা ভোটাধিকার প্রয়োগ এবং অন্যান্য কিছু সুযোগ সুবিধা গ্রহণ করতে পারবে না।’

হিমন্ত বিশ্ব বলেন, ১৯৭১ সালের পরে যারা শরণার্থী হিসেবে এসেছেন তারা সমস্যার সম্মুখীন হবেন…। আমরা তাদের প্রতি সহমর্মী। কিন্তু তালিকার মধ্যে থাকা অনেকে নাগরিক নিবন্ধন প্রক্রিয়াকে প্রভাবিত করেছেন, আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখব।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ভারতের বন্ধু রাষ্ট্র এবং তারা আমাদের সহযোগিতা করছে। অবৈধ অভিবাসীদের বিষয়ে বললে তারা তাদের ফিরিয়ে নিচ্ছে। এই সংখ্যাটা খুব বেশি নয়। তবে এখন তাদের খুঁজে বের করতে প্রক্রিয়া শুরু করব।

নাগরিকপঞ্জির তালিকায় অন্তর্ভুক্ত বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী জেলাগুলোর অন্তত ২০ শতাংশ এবং আসামের ১০ শতাংশ নাগরিকের পুনঃযাচাইয়ের অনুমতি দিতে সুপ্রিম কোর্টের কাছে দাবি জানান অর্থমন্ত্রী হিমন্ত।

তিনি বলেন, ১৪ থেকে ১৫ লাখ বিদেশি শনাক্ত করেছি… এটা প্রমাণিত হয়েছে। মমতা ব্যানার্জি যাই বলুক না কেন তা আমরা আমলে নিচ্ছি না।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.