১১৫ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে দম্পতি উধাও

0
239
টাকা

সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেডের নওগাঁ শাখা থেকে প্রায় ১১৫ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে স্থানীয় এক ব্যবসায়ী দম্পতি উধাও হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ব্যাংকের ওই শাখার ব্যবস্থাপক ৯ অক্টোবর নওগাঁ সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

ওই ব্যবসায়ী দম্পতির নাম গোপাল আগারওয়াল ও দীপা আগারওয়াল। তাঁরা নওগাঁ শহরের পোস্ট অফিসপাড়া এলাকার বাসিন্দা। গোপাল আগারওয়াল জেএন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড এবং দীপা আগারওয়াল মেসার্স শুভ ফিড প্রসেসিং নামের দুটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গোপাল আগারওয়াল ও দীপা আগারওয়ালের মালিকানাধীন জেএন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড ও মেসার্স শুভ ফুড প্রসেসিং ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান দুটি বগুড়া জেলার দুপচাঁচিয়া উপজেলার জগন্নাথপুর এলাকায় বগুড়া-নওগাঁ আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে অবস্থিত। জেএন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড মূলত স্বয়ংক্রিয় চালকল এবং মেসার্স শুভ ফিড প্রসেসিং প্রতিষ্ঠানে মাছ ও মুরগির খাদ্য তৈরি করা হয়। সম্প্রতি সেখানে গিয়ে দেখা যায়, কারখানা দুটির উৎপাদন বন্ধ রয়েছে। মূল ফটকে সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড নওগাঁ শাখার পক্ষ থেকে সম্পত্তির তফসিল উল্লেখ করে নোটিশ টাঙানো হয়েছে। প্রতিষ্ঠান দুটিতে কোনো শ্রমিক কিংবা কর্মকর্তার দেখা পাওয়া যায়নি। তবে নিরাপত্তার জন্য ব্যাংকের পক্ষ থেকে চারজন নিরাপত্তারক্ষী রাখা হয়েছে।

সাউথইস্ট ব্যাংক সূত্র বলেছে, গোপাল আগারওয়াল ব্যবসায় বিনিয়োগ করার জন্য তাঁর মালিকানাধীন জেএন ইন্ডাস্ট্রিজের নামে সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেডের নওগাঁ শাখা থেকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মেয়াদে মোট ৮৪ কোটি ১৩ লাখ ৮৮ হাজার টাকা ঋণ নিয়েছেন। এ ছাড়া তাঁর স্ত্রী দীপা আগারওয়াল তাঁর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান মেসার্স শুভ ফিড প্রসেসিংয়ে বিনিয়োগের জন্য বিভিন্ন সময় মোট ৩০ কোটি ৮০ লাখ ১৪ হাজার টাকা ঋণ নিয়েছেন। ওই ব্যবসায়ী দম্পতি ব্যাংকটি থেকে মোট ১১৪ কোটি ৯৪ লাখ ২ হাজার ঋণ নিয়েছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম কামাল হোসেন মুঠোফোনে বলেন, বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মেয়াদে ওই ব্যবসায়ী দম্পতি ব্যাংক থেকে প্রায় ১১৫ কোটি টাকা ঋণ নিয়েছেন। সুদে-আসলে তাঁদের কাছ থেকে ব্যাংকের পাওয়া আরও বেশি। এক বছর ধরে তাঁদের ঋণের কিস্তি অনিয়মিত। এ বিষয়ে ব্যাংকের পক্ষ থেকে একাধিকবার জানানো হয়েছে। এক মাস আগে হুট করে তাঁদের সঙ্গে ব্যাংকের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। ব্যাংকের পক্ষ থেকে নানাভাবে খোঁজ করেও তাঁদের হদিস পাওয়া যাচ্ছে না। বিভিন্ন মাধ্যমে শোনা যাচ্ছে, তাঁরা ভারতে চলে গেছেন। এ ঘটনায় ৯ অক্টোবর সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেডের নওগাঁ শাখার ব্যবস্থাপক কামরুজ্জামান সদর থানায় জিডি করেছেন।

এক প্রশ্নের জবাবে কামাল হোসেন বলেন, এক দিনে এ ঋণ তাঁদের দেওয়া হয়নি। তাঁরা নওগাঁর প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী। গোপাল আগারওয়ালের দাদা ও বাবাও সুপরিচিত ব্যবসায়ী ছিলেন। ওই দম্পতি ঋণের বিপরীতে ব্যাংকের কাছে যে সম্পদ বন্ধক রেখেছেন, তা ঋণের প্রায় ৭০ শতাংশ। তাঁদের আরও কিছুদিন খোঁজা হবে। তারপরও না পেলে বন্ধকি সম্পত্তি বিক্রি করে অর্থ আদায়ের চেষ্টা করা হবে।

নওগাঁ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে ব্যবসায়ী দম্পতি উধাও হয়েছেন বলে একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে