হ্যাটট্রিকের হ্যাটট্রিক ভারতের

0
205
বাংলাদেশের বিপক্ষে শেষ ওভারে হ্যাটট্রিক করেছেন দীপক চাহার। ছবি : এএফপি

ভারতে ভয় ধরানো ফাস্ট বোলার নেই, বহুদিন ধরেই লোকজনের মুখে মুখে ঘুরে বেড়াত এই কথা। অনিল কুম্বলে, বিষেণ সিং বেদি, হরভজন সিং, রবিচন্দ্রন অশ্বিনদের মতো স্পিনার উপহার দেওয়া ভারতের নিখাদ পেস বোলার নিয়ে হাপিত্যেশ ছিলই। এককালে টেস্ট ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি উইকেট নেওয়া বিশ্বকাপজয়ী কপিল দেবও সেই হাপিত্যেশ মেটাতে পারেননি। কিন্তু সেই ভারতের হয়েই হালে আবির্ভূত হয়েছেন দুনিয়া কাঁপিয়ে দেওয়া সব পেসার। এ বছরই হ্যাটট্রিকের ‘হ্যাটট্রিক’ গড়েছেন ভারতীয় পেসাররা।

যশপ্রীত বুমরা, মোহাম্মদ শামি, ভুবনেশ্বর কুমার, উমেশ যাদব, খলিল আহমেদ, দীপক চাহার, শার্দুল ঠাকুর, নবদ্বীপ সাইনি, সিদ্ধার্থ কল, মোহাম্মদ সিরাজ— ইতিহাসের অন্য কোনো সময়ে ভারতের এত শক্তিশালী পেস ইউনিট ছিল কি না, তা মাথা চুলকে বের করতে হবে। এসব পেসার যে শুধু নামে নন, কাজেও ষোলোআনা পারদর্শী, সেটাও বিশ্ব দেখল এ বছর। টেস্টের পর ওয়ানডে ও টি টোয়েন্টিতে এক পঞ্জিকাবর্ষে হ্যাটট্রিক করার বিরল রেকর্ড গড়লেন ভারতের পেসাররা। এর আগে কোনো দেশের বোলারই এমন নজির গড়তে পারেননি। বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিক করেছিলেন মোহাম্মদ শামি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে গিয়ে টেস্ট ক্রিকেটে হ্যাটট্রিক করেন যশপ্রীত বুমরা। আর সেদিন নাগপুরে টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশকে বশ বানানোর মূল কারিগর দীপক চাহার করেছেন হ্যাটট্রিক। এ তো হ্যাটট্রিকের হ্যাটট্রিক!

টি-টোয়েন্টি সিরিজের ফাইনালে এক দীপক চাহারের তোপেই হার মেনেছে বাংলাদেশ। আর হ্যাটট্রিক করে দীপক চাহার দেশকে এনে দিয়েছেন এক অনন্য সম্মান।

চমক জাগানো বিষয় হচ্ছে, এই দীপক চাহার আবার ভারতের দলেই নিয়মিত নন। বিশ্বকাপেও জায়গা পাননি চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে আলো ছড়ানো এই পেসার। ভারতের মূল তিন পেসার যশপ্রীত বুমরা, মোহাম্মদ শামি ও ভুবনেশ্বর কুমারকে বিশ্রাম দেওয়ার পরিকল্পনা না থাকলে হয়তো এ সিরিজেও চাহারকে দেখা যেত না। অথচ সুযোগ পেয়ে সেই চাহারই দেখিয়ে দিলেন, সামর্থ্য তাঁরও কম নয়! এটাই প্রমাণ করে, পেস আক্রমণে ভারত এখন কতটা বলীয়ান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে