হার দিয়ে শুরু হলো মেয়েদের এএফসি চ্যাম্পিয়নশিপ

0
900
থাইল্যান্ডের খেলোয়াড়ের সঙ্গে বল দখলের লড়াইয়ে বাংলাদেশের মনিকা চাকমা। ছবি: এএফসি
থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিত এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপে স্বাগতিকদের বিপক্ষে ১-০ গোলে হেরেছে বাংলাদেশ। বুধবার দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ তিনবারের চ্যাম্পিয়ন জাপান।

 

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবলের চূড়ান্ত পর্বের শুরুটা হার দিয়ে হয়েছে বাংলাদেশের। গতকাল থাইল্যান্ডের চনবুরি স্টেডিয়ামে ১-০ গোলে হেরে মাঠ ছেড়েছে মারিয়া মান্দারা। ফ্রি-কিক থেকে থাইল্যান্ডের একমাত্র গোলটি করেছেন থাওয়ানরাত প্রমথংমি।

ম্যাচের শুরুতেই এগিয়ে যেতে পারত বাংলাদেশ। ৪ মিনিটে তহুরার দারুণ একটা আক্রমণ ঠেকাতে জায়গা ছেড়ে বেরিয়ে আসেন থাইল্যান্ডের গোলরক্ষক পাবারিসা হোমায়ামিয়েন। গোল বাঁচাতে গোললাইনে তহুরার সামনে দাঁড়ান ডিফেন্ডার প্লুয়েমজাই সন্তিসান। বাংলাদেশের স্ট্রাইকারের শটটি লাগে ক্রসবারে! দ্বিতীয়ার্ধের ৫৬ মিনিটে আরও একটি সুযোগ পেয়েছিলেন তহুরা। এক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে বক্সেও ঢুকে পড়েন। তখন সামনে শুধুই গোলরক্ষক পাবারিসা। কিন্তু আবারও ব্যর্থ হয়েছেন তহুরা।

ধীরে ধীরে খেলার নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে থাই মেয়েরা। কখনো গোলরক্ষক রুপনা চাকমা ঠেকিয়েছেন, কখনো বল চলে গেছে বাইরে। ৫৮ মিনিটে থাইল্যান্ডের মিডফিল্ডার জানিসতা জিনানতুয়ার এমনই একটা আক্রমণ আর ঠেকাতে পারেনি বাংলাদেশের মেয়েরা। বৃষ্টিস্নাত মাঠে প্রথম দফায় বলটা পানিতে আটকে যায়, ওই বলটি দৌড়ে ক্লিয়ার করতে গিয়ে অহেতুক জানিসতাকে ফেলে দেন ডিফেন্ডার আনাই মগিনি। ফাউলের বাঁশি বাজান কোরিয়ান রেফারি কিম জিন। বক্সের সামান্য বাইরে থেকে নেওয়া থাওয়ানরাতের শট রুপনার নাগালের বাইরে দিয়ে ঢোকে জালে। ছোটখাটো গড়নের রুপনা শুধুই ওপরের দিকে তাকিয়ে দেখলেন সেটি।

হারের ব্যবধান বাড়তে পারত আরও। ৮০ মিনিটে বক্সের মধ্যে থাইল্যান্ডের ফরোয়ার্ড সুচাভাদি চমপেনাংকে ফেলে দেন ডিফেন্ডার আঁখি খাতুন। কিন্তু স্পটকিক থেকে গোল করতে পারেননি সুচাভাদি। বুধবার গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশ দ্বিতীয় ম্যাচটি খেলবে তিনবারের চ্যাম্পিয়ন জাপানের বিপক্ষে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে