হঠাৎ দুদকে সাকিব

0
205
সাকিব আল হাসান। ফাইল ছবি

আজ সকালে হঠাৎ করেই দুর্নীতি দমন কমিশনে গিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। বর্তমানে নিষিদ্ধ থাকা বাংলাদেশের সেরা এ ক্রিকেটার সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে দুদকে গিয়েছিলেন বলে জানানো হয়েছে

আইসিসি এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করায় আপাতত খেলায় মনোযোগ দেওয়ার সুযোগ নেই সাকিব আল হাসানের। এই ফাঁকে আজ হঠাৎ করেই দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) গিয়েছিলেন বাংলাদেশের সেরা এ ক্রিকেটার। সকাল সাড়ে দশটার দিকে দুদকে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে ছিলেন প্রায় আধ ঘণ্টার মতো।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য খবরটি নিশ্চিত করেন।

গত ২৯ অক্টোবর জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করায় সাকিবকে নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি। ভারত সফরে তাই দলের সঙ্গে যেতে পারেননি। প্রণব কুমার জানালেন, সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে এসেছিলেন সাকিব। তিনি বলেন, ‘দুদকের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে সময় পেলেই আসেন সাকিব। বিশেষ কোনো বিষয়ে আসেননি। সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে এসেছিলেন।’

দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ এবং প্রতিরোধ ও অণু বিভাগের কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন সাকিব। সাকিব নিষিদ্ধ হওয়ার পর দুদক চেয়ারম্যান বলেছিলেন, ‘সাকিব কোনো দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত হয়নি। দুদক সব সময় তার পাশে আছে।’

এর আগে গত ৩১ অক্টোবর সাকিবকে নিয়ে দুদক চেয়ারম্যান বলেছিলেন, ‘সাকিবকে নিয়ে যে ঘটনা ঘটেছে তা দুঃখজনক। কিন্তু একই সঙ্গে সে ভুল স্বীকার করেছে, তার মধ্য দিয়ে সে উচ্চ নৈতিকতার পরিচয় দিয়েছে। দুদক যখন চেয়েছে তখনই সাকিব বিনা পয়সায় আমাদের সঙ্গে কাজ করেছে। সে তরুণদের আইডল। আশা করি আগের মতোই আমরা সাকিবকে পাশে পাব।’

২০২০ সালের ২৯ অক্টোবর শেষ হবে সাকিবের নিষেধাজ্ঞা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে