সোহেল রানাকে এফডিসিতে ঢুকতে বাধা

0
339
বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে ভোট দিতে এসে এফডিসিতে ঢুকতে বাধার মুখে পড়েন চলচ্চিত্রের জ্যেষ্ঠ অভিনেতা ও প্রযোজক সোহেল রানা। পরে তিনি এই ঘটনার প্রতিবাদ করেন।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সকাল ১০টার দিকে ভোট দিতে এফডিসিতে আসেন চলচ্চিত্রের জ্যেষ্ঠ অভিনেতা ও প্রযোজক সোহেল রানা। কিন্তু নির্বাচনী পাস না থাকায় তাঁকে এফডিসিতে ঢুকতে বাধা দেয় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ। একজন পুলিশ কর্মকর্তা জানান, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে নির্বাচন কমিশন যে নির্দেশনা দিয়েছে, তাতে স্পষ্ট উল্লেখ আছে, নির্বাচনী পাস ছাড়া আজ কেউ এফডিসিতে ঢুকতে পারবেন না।

খবর পেয়ে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতির অফিস সহকারী সোমেন্দ্র চন্দ্র দাশ এফডিসির গেটে এসে সোহেল রানার পরিচয় নিশ্চিত করলেও তাঁকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি।

এদিকে এ ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর এফডিসির ভেতর থেকে ছুটে যান চলচ্চিত্রের অন্য শিল্পীরা। তাঁর গেট থেকে সোহেল রানাকে এফডিসির ভেতরে নিয়ে আসেন।

এফডিসিতে প্রবেশ করেই সোহেল রানা ক্ষোভ ঝাড়তে থাকেন। বললেন, ‘এখানে চলচ্চিত্র শিল্পীদের কোনো নির্বাচন হচ্ছে? এটা হচ্ছে পুলিশের নির্বাচন। আমার অভিনয়জীবনে এমন বাজে নির্বাচন কখনো দেখিনি।’ এ সময় তাঁর পাশে ছিলেন নির্বাচনে সভাপতি প্রার্থী মিশা সওদাগর।

সোহেল রানা আরও বলেন, ‘এফডিসিতে ঢুকতে আমার মতো সোহেল রানাকে কয়েক ধাপ বাধা পার করে আসতে হয়েছে।’ তিনি উত্তেজিত হয়ে বলেন, ‘চলচ্চিত্র শিল্পীদের নির্বাচনে এত পুলিশ পাহারা কেন থাকবে? আগে এফডিসির সব নির্বাচন হয়েছে উৎসবমুখর পরিবেশে। কিন্তু এবার বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন দেখে মনে হচ্ছে এটা পুলিশের ক্যাম্প।’

এই ঘটনার প্রতিবাদ করে চিত্রনায়ক ফেরদৌস বলেন, ‘এটা মোটেও উচিত হয়নি। সোহেল রানা সাহেব সম্মানিত ব্যক্তি। তাঁকে যথাযথ সম্মান দেওয়া উচিত ছিল।’

আজ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে সকাল ৯টায়, চলবে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। এবার নির্বাচনে ১৮টি পদের জন্য ২৭ জন লড়ছেন। তিনটি পদে অন্য প্রার্থী না থাকায় আগেই ফলাফল চূড়ান্ত হয়ে গেছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে