সোহানদের বিশ্বকাপযাত্রা আজ

0
83
বাংলাদেশ ক্রিকেট দল

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশে দেশ ছাড়বে আজ মধ্যরাতে। প্রথমে নিউজিল্যান্ডে গেলেও সোহানদের এটি বিশ্বকাপযাত্রা। কারণ নিউজিল্যান্ডে খেলা শেষ করে সোজা বিশ্বকাপ ভেন্যু অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছাবেন ক্রিকেটাররা। আইসিসির প্রটোকল অনুযায়ীও বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ যাত্রা এটি। বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশের জন্য বরাদ্দকৃত ২৩টি টিকিটও দিয়েছে। সেদিক থেকে দেখলে বাংলাদেশে টি২০ বিশ্বকাপের বাতাবরণ শুরু হয়ে যাচ্ছে আজ থেকেই।

ত্রিদেশীয় সিরিজ, বিশ্বকাপ মিলিয়ে নূ্যনতম ৪০ দিন নিউজিল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ায় থাকতে হবে বাংলাদেশ দলকে। লম্বা সফরে ক্রিকেটারদের অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হবে। এর মধ্যে বিশ্বকাপে নিজেদের অভিযানের শেষদিন পর্যন্ত ফিট থাকা অন্যতম। শারীরিক সুস্থতার পাশাপাশি মানসিকভাবে ভালো থাকা বেশি জরুরি। পরিবার থেকে লম্বা সময় দূরে থাকলে একটা পর্যায়ে হোম সিকনেস কাজ করা স্বাভাবিক। বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা আত্মকেন্দ্রিক হওয়ায় সেটা আরও বেশি প্রভাবিত করে। এ ছাড়া বিশ্বকাপে নিয়মের কড়াকড়িও থাকে। ইচ্ছামতো ঘুরে বেড়ানোর ফুরসত থাকে না। একটি ম্যাচ শেষ করেই অন্য ভেন্যুতে যাওয়ার তাড়া থাকে। তাই ভ্রমণ ক্লান্তিও থাকবে বিশ্বকাপে। সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশ পাঁচটি ম্যাচ খেলবে চারটি ভেন্যুতে। হোবার্টে ২৪ অক্টোবর বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ বাছাই পর্ব থেকে উত্তীর্ণ হওয়া দলের বিপক্ষে। ২৭ অক্টোবর সিডনিতে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হবেন সাকিবরা। ৩০ অক্টোবর ব্রিসবেনের গ্যাবায় বাছাই পর্বের দলের সঙ্গে খেলা। টাইগারদের পরের ঘাঁটি অ্যাডিলেড। এই ভেন্যুতেই সবচেয়ে বেশি সময় থাকবে বাংলাদেশ দল। ২ ও ৬ নভেম্বর ভারত-পাকিস্তানের বিপক্ষে গ্রুপ থেকে চতুর্থ ও পঞ্চম ম্যাচ খেলবেন সাকিবরা। এ ছাড়া ১৭ ও ১৯ অক্টোবর ব্রিসবেনে আফগানিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে খেলা।

বাংলাদেশ বিশ্বকাপে কেমন খেলতে পারে, তার একটা ধারণা পাওয়া যাবে নিউজিল্যান্ডের ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টে। স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড ও পাকিস্তানের বিপক্ষে ডাবল লিগের টুর্নামেন্ট বিশ্বকাপ প্রস্তুতির জন্য সেরা মঞ্চ। দু’একটি ম্যাচ জিতে গেলে বিশ্বকাপে ভালো খেলার টনিক পেয়ে যাবে। তিন জাতির টুর্নামেন্ট খেলতে ২৯ সদস্যের বহর নিয়ে ক্রাইস্টচার্চ যাচ্ছে বাংলাদেশ। ১৭ জন ক্রিকেটারের সঙ্গে বিদেশি কোচিং স্টাফ, ম্যানেজার, টিম ডিরেক্টর, দু’জন সাপোর্ট স্টাফ থাকছেন দলের সঙ্গে। দেশ থেকে যাবেন ১৬ জন ক্রিকেটার। অতিরিক্ত তালিকায় থাকা চারজনের দু’জন সৌম্য সরকার ও শরিফুল ইসলাম সফরসঙ্গী হচ্ছেন। শেখ মেহেদী ও রিশাদ হোসেন খেলবেন ‘এ’ দলের সিরিজ। ক্যারিবীয় প্রিমিয়ার লিগ খেলা সাকিব যোগ দেবেন নিউজিল্যান্ডে। এই স্কোয়াডের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ায় যোগ হবেন চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী ও প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। তবে পরিস্থিতির দাবি মেটাতে বিশ্বকাপ দলেও হাত লাগাতে হতে পারে। একটি দুটি জায়গায় পরিবর্তন করা হলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.