সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনায় ৩১ লেখকের উদ্বেগ

0
72
নোয়াখালীর চৌমুহনীতে রামঠাকুর আশ্রমের সামনের একটি দোকানে অগ্নিসংযোগ করা হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা আগুন নেভানোর চেষ্টা করছেন। শুক্রবার বিকেলে

কুমিল্লার ঘটনায় স্বাধীন ও নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, জনগণ সচেতন হলে কোনোভাবেই এটি হতো না। জনগণকে সচেতন করা, তাদের মননকে অসাম্প্রদায়িক হিসেবে গড়ে তোলার দায় রাষ্ট্রের।

এই লেখক, কবি ও সাহিত্যিকেরা বলেন, সাম্প্রদায়িকতা একটি জাতীয় সমস্যা। এটি নিরসনে ধারাবাহিক জাতীয় সংলাপ আয়োজন করা যেতে পারে। সর্বস্তরের জনগণকে সম্পৃক্ত করে, আলোচনা করে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার মূল চিহ্নিত করা যেতে পারে।

বিবৃতিটি দিয়েছেন ইমতিয়ার শামীম, শাহনাজ মুন্নী, আহমাদ মোস্তফা কামাল, কবির হুমায়ূন, শামীম রেজা, আলফ্রেড খোকন, টোকন ঠাকুর, রাজীব নূর, পিয়াস মজিদ প্রমুখ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে