‘সাকিবের না থাকা বাংলাদেশের জন্য ভালো’

0
171
সাকিবের অনুপস্থিতি তরুণ ক্রিকেটারদের জন্য বড় সুযোগ বলে মনে করছেন নাফীস। ছবি: এএফপি

আগামীকাল শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। স্বাগতিক দলের চেয়ে এমনিতেই পিছিয়ে ছিল বাংলাদেশ দল। আর সিরিজের আগেই নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের এক বছরের নিষেধাজ্ঞা দলকে মানসিকভাবেও অনেকটা পিছিয়ে দিয়েছে; বোলিং ও ব্যাটিং বিভাগে সেরা ক্রিকেটারকে হারানো তো আছেই। তবে বাংলাদেশের প্রথম টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক শাহরিয়ার নাফীসের ধারণা, এ নিষেধাজ্ঞা ‘শাপে বর’ হয়ে উঠতে পারে বাংলাদেশের জন্য।

পারিবারিক কারণে তামিম ইকবালকে পাচ্ছে না বাংলাদেশ। ভারতের বিপক্ষে এমনিতেই একটু পিছিয়ে ছিল বাংলাদেশ। এর মধ্যে সাকিবের নিষিদ্ধ হওয়া দলকে এক ধাক্কায় অনেকটাই পিছিয়ে দিয়েছে। এ কারণে দিল্লিতে ১৫১ ম্যাচের অভিজ্ঞতা ছাড়া নামতে হচ্ছে দলকে। এ অবস্থাকে দলের তরুণ ক্রিকেটারদের জন্য সেরা সুযোগ হিসেবে দেখছেন শাহরিয়ার নাফীস।

বাংলাদেশের অভিষেক টি-টোয়েন্টিতে নেতৃত্ব দেওয়া নাফীস বার্তা সংস্থা পিটিআইকে বলেছেন, ‘তরুণ বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের নিজেদের প্রমাণ করার জন্য এর চেয়ে ভালো সুযোগ হয় না, বিশেষ করে ভারতের মতো বড় দলের বিপক্ষে। ভারতের সঙ্গে খেলা পুরো বিশ্ব দেখবে। তরুণদের জন্য বাংলাদেশের হয়ে তারকা বনার দারুণ সুযোগ এটি।’

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে গত দুই বছরে সবচেয়ে বেশি উন্নতি করেছেন মাহমুদউল্লাহ। তাঁকেই তাই সাকিবের জায়গা দেওয়া হয়েছে এ সিরিজে। সামনের মাসেই আইপিএলের নিলাম হচ্ছে। ফলে, এ সিরিজে ভালো করলে মাহমুদউল্লাহ ও অন্যদের জন্য আইপিএলে ডাক পাওয়ার সম্ভাবনাও দেখছেন নাফীস, ‘মাহমুদউল্লাহ একজন সফল খেলোয়াড়। আশা করি, সে সাকিবের অভাব পূরণ করতে পারবে। এটা হয়তো দলের জন্য শাপে বর হবে। সামনেই আইপিএল ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। পুরো দলেরই সুযোগ আছে এ সিরিজ কাজে লাগানোর। তরুণদের খুব ভালো সুযোগ। সব দল বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। বাংলাদেশের ক্ষেত্রে সেটা কাল শুরু হবে।’

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ-ভারত লড়াই পুরোপুরি একতরফা। আট ম্যাচ খেলে এখনো কোনো জয় নেই বাংলাদেশের। তবে ফলাফলে কোনো দাগ না থাকলেও বাংলাদেশ ও ভারতের ম্যাচে ঠিকই প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঝাঁজ পান নাফীস, গত তিন–চার বছরে বাংলাদেশ ও ভারতের মাঝে একটি ইতিবাচক প্রতিদ্বন্দ্বিতা দেখা যাচ্ছে। পুরোনো ভারত-পাকিস্তান দ্বৈরথের স্বাদ এনে দিচ্ছে সেটা। এদিক থেকে বাংলাদেশ কঠিন লড়াই করবে এবং ভারতের বিপক্ষে প্রথম জয়ের স্বাদ পাওয়ার চেষ্টা করবে। সন্দেহ নেই সাকিব, তামিম ও সাইফউদ্দিন ছাড়া কাজটা কঠিন; কিন্তু টি-টোয়েন্টিতে গুরুত্বপূর্ণ সুযোগ নিতে পারলে কোনো ফলই অসম্ভব নয়। যদি পুরো দল জেগে ওঠে এবং নিজেদের সেরা খেলা দিতে পারে, তবে সবই সম্ভব।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে