সমাপনী পরীক্ষায় দায়িত্ব পালন করতে শিক্ষকদের অনুরোধ

0
168

আসন্ন প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় দায়িত্ব পালন করার জন্য আন্দোলনকারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব মো.আকরাম-আল-হোসেন। একই সঙ্গে তিনি আন্দোলনকারী শিক্ষক নেতাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করবেন বলেও আশ্বাস দেন।

আন্দোলনকারী শিক্ষক নেতাদের একটি প্রতিনিধিদল আজ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সচিবালয়ে সচিব আকরাম-আল-হোসেনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করলে তিনি এই অনুরোধ ও চেষ্টার কথা জানান।

এ বিষয়ে আন্দোলনকারী বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের সদস্যসচিব মোহাম্মদ শামছুদ্দিন বলেন, আগামীকাল শুক্রবার তাঁরা জরুরি বৈঠক করে তাদের পরবর্তী অবস্থান জানাবেন।
১৭ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা। কিন্তু বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে আন্দোলনকারী প্রাথমিক শিক্ষকেরা হুমকি দিয়েছেন ১৩ নভেম্বরের মধ্যে বেতন বৈষম্য নিরসন না হলে সমাপনী পরীক্ষা বর্জন করবেন। এ অবস্থায় উচ্চবিদ্যালয় ও মাদ্রাসার শিক্ষকদের দিয়ে এই পরীক্ষা নেওয়ার বিকল্প প্রস্তুতি নিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। পাশাপাশি সংকট সমাধানেরও চেষ্টা চলছে। তারই আলোকে আজ সচিবের সঙ্গে বৈঠক করেছেন শিক্ষক নেতারা।
বৈঠকে উপস্থিত একজন শিক্ষক নেতা বলেন, প্রাথমিক সচিব তাঁদের জানিয়েছেন, অর্থ মন্ত্রণালয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের বেতন ১৩তম গ্রেড এবং সব প্রধান শিক্ষকদের বেতন ১১ম গ্রেডে করতে রাজি আছে। কিন্তু শিক্ষক নেতারা তা মানেন না।

শিক্ষক নেতারা বলেছেন, তাঁদের দাবি সহকারী শিক্ষকদের বেতন ১১ তম গ্রেড এবং প্রধান শিক্ষকদের বেতন ১০ম গ্রেডে উন্নীত করতে হবে। বর্তমানে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকেরা ১৪ তম গ্রেডে ও প্রশিক্ষণবিহীন শিক্ষকেরা ১৫ তম গ্রেডে বেতন পান। আর প্রশিক্ষণ পাওয়া প্রধান শিক্ষকেরা ১১ তম গ্রেডে এবং প্রশিক্ষণবিহীন প্রধান শিক্ষকেরা ১২ তম গ্রেডে বেতন পান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে