শীতে সুস্থ থাকতে যেসব খাবার খেতে পারেন

0
31
ভিটামিন সি খাবার

শীতে শুধু ত্বকের সমস্যা নয় সর্দি,কাশি, জ্বরেও কাবু হয়ে পড়েন অনেকেই। শীতে সুস্থ থাকতে তাই শরীরের বিভিন্ন পুষ্টিগত উপাদান প্রয়োজন। শীতে সজীব থাকতে নিয়মিত খাদ্যতালিকায় কয়েকটি খাবার রাখতে পাবেন। যেমন-

১. শীতে চিনির বিকল্প হিসেবে মধু বা গুড় ব্যবহার করুন। মধুতে ভিটামিন, খনিজ পদার্থ ও অন্যান্য পুষ্টিগুণ আছে।  এই সময় সুস্থ থাকতে সকালে এক গ্লাস পানিতে মধু মিশিয়ে খেতে পারেন। গুড়ে প্রচুর পরিমাণ আয়রন পাওয়া যায়। এ কারণে গুড় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ভূমিকা রাখে।

২. ওজন বেড়ে যাওয়ার ভয়ে অনেকেই ঘি এড়িয়ে চলেন। কিন্তু অন্যান্য স্নেহ পদার্থের তুলনায় ঘি অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর।  ঘি’য়ে থাকা নানা পুষ্টি উপাদান অস্থিসন্ধির সক্ষমতা বজায় রাখে। সেই সঙ্গে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, ত্বকের উন্নতিও ঘটায়।

৩. শরীরে ভিটামিন সি এর চাহিদা পূরণ করতে ‘সাইট্রাস’ জাতীয় ফলের জুড়ি নেই। লেবু, মোসম্বি ও কমলা যেমন শরীরের প্রয়োজনীয় ভিটামিন সি ঘাটতি পূরণ করে তেমনি ফাইবারের ঘাটতিও মেটায়। পেয়ারাতেও প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, পটাশিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম পাওয়া যায়, যা শরীরের জন্য দারুণ উপকারী।

৪. শীতকালের একটি সুপার ফুড হচ্ছে পালং শাক। অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর পালং শাক ক্যান্সার প্রতিরোধী গুণে সমৃদ্ধ। ভিটামিন ও খনিজে ভরপুর এই শাক ওজন কমাতেও অত্যন্ত কার্যকর।

৫. শীতকালে বাজারে প্রচুর পরিমাণ মূলজাতীয় সবজি পাওয়া যায়। বিট, গাজর, শালগম ইত্যাদি শীতকালীন সবজি ভালো কোলেস্টেরল বাড়াতে ও খারাপ কোলেস্টেরল কমাতে অত্যন্ত উপযোগী। তাই শীতকালে সুস্থতার চাবিকাঠি হতেই পারে এসব সবজি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে