রোহিঙ্গা শিবিরে অপকর্মে লিপ্ত থাকায় ৪১ এনজিও প্রত্যাহার: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

0
305
সিলেট সিটি করপোরেশনের মেডিকেল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। দক্ষিণ সুরমা এলাকা, সিলেট, ৩১ আগস্ট। ছবি: সংগৃহীত

কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে অপকর্মে লিপ্ত থাকায় ৪১টি বেসরকারি সংগঠনকে (এনজিও) ক্যাম্পের সব ধরনের কার্যক্রম থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

আজ শনিবার সিলেটের দক্ষিণ সুরমা এলাকায় সিটি করপোরেশনের মেডিকেল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন।

এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ২০১৭ সালের আগস্টে রোহিঙ্গা সমস্যা সৃষ্টির পর ১৩৯টি বেসরকারি সংগঠন ওই এলাকায় তাদের কার্যক্রম শুরু করেছিল। এদের মধ্যে অপকর্মে লিপ্ত থাকায় তালিকা করে ৪১টি সংগঠনকে সব ধরনের কার্যক্রম থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এখনো অনেক এনজিও একই কাজ করছে। সে ধরনের তথ্য প্রমাণও পাওয়া যাচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নিয়মনীতির বাইরে গিয়ে কাজ করলে বেসরকারি সংগঠনের বিরুদ্ধে আইন মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গত বুধবার মুক্তি নামের একটি বেসরকারি সংগঠনের ছয়টি প্রকল্পের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে এনজিও–বিষয়ক ব্যুরো। এসব প্রকল্পের মাধ্যমে ধারালো অস্ত্র তৈরি করে রোহিঙ্গাদের মধ্যে বিতরণের অভিযোগ আছে।

রোহিঙ্গাদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হচ্ছে। ছবি: ফাইল ছবি

সিলেট সিটি করপোরেশনের মেডিকেল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা উদ্যোগকে স্বাগত জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এ সময় সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীসহ সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তা ও সিলেট জেলা এবং মহানগর আওয়ামী লীগের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন, হত্যা, ধর্ষণ শুরু হয়। এরপরই রোহিঙ্গারা পালিয়ে ২০১৭ সালের আগস্টে বাংলাদেশে আসে। একে একে সাড়ে সাত লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আসে। এদের জন্য কক্সবাজারে আশ্রয়শিবির তৈরি করে দেয় সরকার।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে