রোহিঙ্গাদের মুঠোফোন সেবা বন্ধের নির্দেশ: যথাযথ পদক্ষেপ নেবে অ্যামটব

0
167
অ্যাসোসিয়েশন অব মোবাইল টেলিকম অপারেটরস অব বাংলাদেশ (অ্যামটব)

মুঠোফোন অপারেটরদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব মোবাইল টেলিকম অপারেটরস অব বাংলাদেশ (অ্যামটব) বলেছে, জাতীয় পরিচয় তথ্যভান্ডারে (এনআইডি) সংরক্ষিত তথ্যের সঙ্গে আঙুলের ছাপ যাচাই করার পরই কেবল মোবাইলের সিম সক্রিয় হয়।

আজ রোববার বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) মোবাইল অপারেটরদের চিঠি দিয়ে রোহিঙ্গাদের মুঠোফোন সেবা বন্ধের নির্দেশ দেওয়ার পর এক প্রতিক্রিয়ায় এ কথা জানায় অ্যামটব।

অ্যামটবের মহাসচিব এস এম ফরহাদ বলেন, ‘মোবাইল অপারেটরেরা সব সময়ই বিটিআরসির নির্দেশনা মেনে চলে। এ ব্যাপারে তারা নিজেদের আয়ত্তের মধ্যে সম্ভব যথাযথ পদক্ষেপ নেবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আরেকটি বিষয় বলা দরকার, এনআইডি তথ্যভান্ডারের সঙ্গে আঙুলের ছাপ মিলিয়ে নিশ্চিত হওয়ার পরেই কেবল মোবাইল সিম সক্রিয় করা হয়।’

বিটিআরসির চিঠিতে বলা হয়েছে, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কোনো প্রকার সিম বিক্রি করা যাবে না। পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের মুঠোফোন সুবিধা দেওয়ার বিষয়েও নিষেধ করেছে বিটিআরসি। এ বিষয়ে আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে ব্যবস্থা নিয়ে বিটিআরসিকে জানাতে বলা হয়েছে।

এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের নির্দেশনার পর বিটিআরসি এই চিঠি দিয়েছে। চিঠিতে বলা হয়েছে, রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা ও গুরুত্ব বিবেচনা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও জন সুরক্ষার স্বার্থে রোহিঙ্গারা যাতে মুঠোফোন সুবিধা না পায়, সেটি নিশ্চিত করতে আগেও বলা হয়েছিল। কিন্তু কমিশন রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনকারী কমিটি, গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও গোয়েন্দা সংস্থার মাধ্যমে ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের মধ্যে ব্যাপক হারে সিম ব্যবহারের তথ্য পেয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে