রিয়ালের মৌসুমের শুরুতে নতুন শিরোপা

0
43
উয়েফা সুপার কাপ চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। ছবি: টুইটার

দলবদলের মৌসুম চলছে। রিয়াল মাদ্রিদও কেনা-বেচা করেছে। তবে উয়েফা সুপার কাপ ফাইনালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ী একাদশই মাঠে নামান ব্লাঙ্কোস কোচ আনচেলত্তি। বুঝিয়ে দেন অ্যান্তোনিও রুডিগার, চুয়ামেনিরা সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে আসলেও আগের দলেই আস্থা তার।

ওই দল পূর্বের ধারাবাহিকতায় পারফরম্যান্স করেছে। করিম বেনজেমা গোল করেছেন। ভিনিসিয়াস জুনিয়র মাঠ দাপিয়েছেন। গোলে সহায়তা দিয়েছেন। গোল করেছেন ডিফেন্ডার ডেভিড আলাবা। মাঝ মাঠ দাপিয়ে বেড়িয়েছেন তিন বুড়ো মিডফিল্ডার কাসেমিরো, ক্রুস এবং মডরিচ। তাদের দাপটে ইনট্রাক্ট ফ্রাঙ্কফুটের বিপক্ষে ২-০ গোলে জিতে উয়েফা সুপার কাপ জিতেছে লস ব্লাঙ্কোসরা।

ম্যাচের ৩৭ মিনিটে গোল করে এগিয়ে যায় রিয়াল মাদ্রিদ। আলাবার গোলের কারিগর ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার কাসেমিরো। বক্সের ভেতরের গোললাইন থেকে হেডে গোলের মুখে থাকা আলাবার সামনে বল ফেলেন তিনি। ফাঁকা গোলে বল জড়িয়ে দেন অস্ট্রিয়ান ডিফেন্ডার। প্রথমার্ধে আর গোল না হলেও ফ্রাঙ্কফুট এবং রিয়াল দুই গোলরক্ষককে বেশ পরীক্ষা নিয়েছে।

রিয়ালের জার্সিতে রাউল গঞ্জালেসকে ছাড়িয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩২৪ গোলের মালিক বেনজেমা। ছবি: এএফপি

দ্বিতীয়ার্ধের ৬৫ মিনিটে দারুণ এক শটে গোল করেন করিম বেনজেমা। গত মৌসুমের মতো নতুন মৌসুমের শুরুতেও ভিনি-বেনজেমা রসায়ন দেখা গেছে। ভিনি বল নিয়ে বক্সের কোনাকুনি ঢুকে পড়েন। এরপর পাস দেন ফ্রান্স স্ট্রাইকারকে। দারুণ দক্ষতায় বল ধরে জালে বল পাঠিয়ে দেন ফ্রান্সম্যান। ব্যালন ডি’অর জয়ের পথে এগিয়ে যান আরও এক ধাপ।

বাকি সময়টাও ফ্রাঙ্কফুটকে কঠিন পরীক্ষা নিয়েছে কার্লো আনচেলত্তির দল। বেনজেমা সুযোগ কাজে লাগাতে পারলে হ্যাটট্রিকও হয়ে যেত। তবে এক গোলেই তিনি রেকর্ড গড়েছেন। রিয়ালের জার্সিতে ৩২৪ গোল করে রাউল গঞ্জালেসকে ছাড়িয়ে গেছেন। ফ্রান্সম্যানের সামনে আছেন কেবল দ্য গ্রেট ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। তার গোল সংখ্যা ৪৫০। এই জয়ে রিয়াল যৌথভাবে সর্বোচ্চ পাঁচটি উয়েফা সুপার কাপ ঘরে তুললো।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.