রাজকোটের আকাশ রৌদ্রোজ্জ্বল, ম্যাচ নিয়ে শঙ্কা কম

0
187
বুধবার রাজকোটের সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুশীলন করে বাংলাদেশ দল-বিসিবি

রাজকোটের উপকূলীয় অঞ্চলে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে বুধবার সন্ধ্যায় এক ঘণ্টার মতো বৃষ্টি হয়েছে। ভারতের আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছিল, বৃহস্পতিবারও বৃষ্টি হতে পারে। কিন্তু বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই রাজকোটের আকাশ রৌদ্রোজ্জ্বল।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত (দুপুর দেড়টা) রাজকোটের আকাশ পরিষ্কার। কোথাও কোনো মেঘের দেখা নেই। তাই বৃষ্টির কারণে বাংলাদেশ-ভারতের দ্বিতীয় টি-২০ নিয়ে যে শঙ্কা ছিল তা এখন নেই বললেই চলে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় রাজকোটের সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ অপরিবর্তিত দল নিয়েই মাঠে নামার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে ভারতীয় দলের বোলিং বিভাগে আসতে পারে পরিবর্তন।

ব্যাকফুটে থাকা স্বাগতিক ক্রিকেটাররা ব্যাটে-বলের ঝড় তুলে জিততে চায় আজ। আর বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা শপথ নিয়ে ফেলেছেন মাঠে ঝড় তুলে সিরিজ জিতবেন তারা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজকোটের রৌদ্রোজ্জ্বল আকাশ।

সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ক্রিকেটের এই মহাঝড় দেখার অপেক্ষায় দুই দেশের সমর্থকরাই। এই ম্যাচে হিমালয় চূড়াসম উচ্চতার আত্মবিশ্বাস নিয়ে খেলবেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা।

নাঈম শেখের মতো তরুণ ব্যাটসম্যানও বিশ্বাস করেন, এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতবেন তারা। এই আত্মবিশ্বাসের জোরে ভারতের মাটিতে আজ টি২০ সিরিজ জয়ের ইতিহাস লিখে ফেলতেও পারে টাইগার বাহিনী।

এই প্রথম টি২০ ক্রিকেটের দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলছে বাংলাদেশ-ভারত, যে মিশনে ১-০-তে এগিয়ে বাংলাদেশ। দল হিসেবে এর চেয়ে ভালো শুরু হতে পারে না, যাকে বলে স্বপ্নের মতো শুরু। আন্ডারডগ হিসেবে খেলতে নেমে ফেভারিটদের হারিয়ে দেওয়া বিশাল প্রাপ্তিযোগ। আজ এ প্রাপ্তির মুকুটে সংযোজন হতে পারে আরও একটি মুক্তা। দেশের ক্রিকেটের ইতিহাস সমৃদ্ধ হতে পারে ভারতের মাটিতে টি২০ সিরিজ জয়ে। সেটা করতে পারলে দল হিসেবে মর্যাদা বাড়বে বাংলাদেশের। এর ইতিবাচক একটা প্রভাব পড়বে টেস্ট সিরিজে। কে না জানে, ছন্দে থাকা বাংলাদেশ দল সব সময়ই ভয়ংকর।

বাংলাদেশ অধিনায়ক জানান, সিরিজ জিততে পারলে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারবেন। দ্বিতীয় ম্যাচে তাই ইতিবাচক ক্রিকেট খেলার প্রস্তুতি নিয়েছেন তারা। এ ম্যাচেও ভারতকে ফেভারিটের তকমা দিয়ে লড়াইয়ে মানসিকভাবে স্বস্তিতে থাকতে চান খেলোয়াড়রা।

মাহমুদুল্লাহ জানান, সাকিব-তামিমের অনুপস্থিতিতে একাদশে সুযোগ পাওয়া তরুণ ক্রিকেটাররা ভালো করেছে। সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচেও ধারাবাহিক পারফরম্যান্স চান তাদের কাছ থেকে। নাঈম শেখের আন্তর্জাতিক অভিষেক জয় দিয়ে হওয়ায় স্বপ্নের মতো কাটছে তার সময়।

সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ভালো কিছু করতে টানা দু’দিন কঠোর অনুশীলন করেছেন খেলোয়াড়রা। সেন্টার উইকেটের পাশের পিচে বুধবার পেস বোলারদের স্পট বোলিং করান চার্লস ল্যাঙ্গেভেল্ট, যেখানে ভেরিয়েশনের ওপর জোর দিয়েছেন তিনি। ফিল্ডিং প্র্যাকটিস ছিল চোখে পড়ার মতো।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে