রওশনকে জাপার চেয়ারম্যান ঘোষণা গঠনতন্ত্র বিরোধী অপরাধ: ফিরোজ

0
372
রওশন এরশাদ— ফাইল ছবি

যারা রওশন এরশাদকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ঘোষণা করেছেন তারা গঠনতন্ত্র বিরোধী অপরাধ করেছেন বলে দাবি করেছেন দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ।

শুক্রবার সন্ধ্যায় জাপা চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে দলের প্রেসিডিয়াম ও সংসদ সদস্যদের যৌথসভা চলাকালে তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের এ কথা বলেন। তার সঙ্গে ছিলেন প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মহাসচিব জিয়া উদ্দিন আহমেদ বাবলু।

ফিরোজ রশীদ বলেন, গঠনতন্ত্র বিরোধী কাজ যারা করেছেন তারাই সাধারণ জনগণ এবং দলের নেতাকর্মীদের মাঝে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। তাদের বিরুদ্ধে গঠনতন্ত্র মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি বলেন, ‘জাপা প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ গঠনতন্ত্রের ২০/১/ক ধারা মোতাবেক জিএম কাদেরকে দলের চেয়ারম্যান পদে স্থলাভিষিক্ত করেছেন। পরে ১৭ আগস্ট প্রেসিডিয়ামের সভায় উপস্থিত সব সদস্য তাকে সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা হতে সমর্থন দেন। এ নিয়ে বিভ্রান্তির অবকাশ নেই।’

সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা নিয়োগে দলের সংসদীয় কমিটির সভা করা নিয়ে জাপার এই নেতা বলেন, এরশাদ চিঠি দিয়ে বিরোধী দলীয় নেতা, উপনেতা ও চিফ হুইপ নির্ধারণ করেছেন। এটা দলের চেয়ারম্যানের এখতিয়ার। পল্লীবন্ধুও কখনও সংসদীয় কমিটির সভা করেননি। তাছাড়া গঠনতন্ত্রেও সংসদীয় কমিটির সভার কোনো কথা নেই।

জিএম কাদের জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এবং তিনিই সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা হবেন বলে জানান ফিরোজ রশীদ।

এ সময় জিয়া উদ্দিন বলেন, এরশাদ তার ছোট ভাই জিএম কাদেরকে গঠনতন্ত্র অনুসরণ করেই দলের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দিয়েছেন। যিনি অন্য কাউকে দলের চেয়ারম্যান ঘোষণা করেছেন তিনি অবৈধ কাজ করেছেন। যাকে ঘোষণা করেছেন তিনি এর প্রতিবাদ না করে সীমারেখা লঙ্ঘন করেছেন। যারা অবৈধ ও অগণতান্ত্রিক ঘোষণা দিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি একটি, যার চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

বিকেল ৫টা থেকে জিএম কাদেরের সভাপতিত্বে প্রেসিডিয়াম ও সংসদ সদস্যদের যৌথ সভা শুরু হয়। এর আগে দলের সংসদীয় বোর্ডের সভা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে