যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে সোচ্চার নারী কর্মীকে বরখাস্ত করলো অ্যাপল

0
76
জেনেকে পারিস

প্রাতিষ্ঠানিক যৌন হয়রানি ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে সোচ্চার এক নারী কর্মীকে বরখাস্ত করেছে মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপল। চাকরিচ্যুত ওই কর্মীর নাম জেনেকে পারিস।

পারিস অ্যাপলের প্রোগ্রাম ম্যানেজার ছিলেন। যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া #মিটু আন্দোলনের মতো #অ্যাপলটু আন্দোলনের একজন সংগঠক ছিলেন পারিস। গত সপ্তাহে তাকে বরখাস্ত করা হয়। গত বৃহস্পতিবার ছিল তার শেষ কর্মদিবস। খবর সিএনএনের

শুক্রবার সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে পারিস বলেন, অ্যাপল তাকে জানিয়েছে যে, অফিসের তথ্য গণমাধ্যমকে দেওয়ার অভিযোগে অভ্যন্তরীণ তদন্ত চলছে। তিনি কোম্পানির কাছে তার ব্যবহৃত কম্পিউটার–ল্যাপটপ হস্তান্তরের আগে অনেক ফাইল মুছে ফেলেছেন। তাই তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

সাম্প্রতিক মাসগুলোতে অ্যাপলের কর্মীরা কোম্পানির ‘ঐতিহ্যবাহী’ গোপনীয়তার নীতি ভেঙে বিতর্কিতভাবে কর্মী নিয়োগ, মজুরি–অসমতা ও দূরবর্তী অফিসনীতি নিয়ে মুখ খোলেন। এ নিয়ে কর্মীদের সঙ্গে অ্যাপলের সম্পর্কের অবনতি হয়। দিন দিন তা আরও বেড়েছে। এর মধ্যে একজন কর্মীকে বরখাস্ত করার এ পদক্ষেপ নেওয়া হলো।

গত আগস্টে শের স্কারলেট নামে এক সহকর্মীকে নিয়ে #অ্যাপলটু শুরু করেন পারিস। তাদের ওয়েবসাইটে লেখা ‘নিজেদের সুরক্ষিত করার জন্য সংগঠিত করা’ই লক্ষ্য। এ জন্য বর্ণবাদ, যৌনতা, বৈষম্যসংক্রান্ত যেসব বিষয়ের মুখোমুখি হয়েছেন, তা জানাতে তাদের অন্য সহকর্মীদের আহ্বান জানান। তাদের এ আহ্বানে সহকর্মীরা ব্যাপক সাড়া দেন।

পারিস গত শুক্রবার সিএনএনকে বলেন, এরপর থেকে কয়েক সপ্তাহের মধ্যে তারা তাদের অন্য সহকর্মীদের কাছ থেকে শত শত অভিযোগ পেতে শুরু করেন।

পারিসকে বরখাস্ত করার ব্যাপারে অবশ্য নির্দিষ্ট করে কোনো মন্তব্য করেনি অ্যাপল কর্তৃপক্ষ। অ্যাপলে কর্মরত স্কারলেটও এ ব্যাপারে কোনো কথা বলেননি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে