মাশরাফির আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার কি শেষ?

0
111

দীর্ঘ বিরতি দিয়ে ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরছে বাংলাদেশ। গত বছরের মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ সিরিজ খেলেছিল টাইগাররা। অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির যেটা ছিল শেষ সিরিজ। ওই সিরিজের পরে দেশের মাটিতে বসতে যাওয়া উইন্ডিজ সিরিজের প্রাথমিক ওয়ানডে দলে জায়গা মেলেনি দেশ সেরা অধিনায়ক মাশরাফির। তাই প্রশ্ন উঠেছে, মাশরাফির আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার কি শেষ?

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নির্বাচকরা দিয়েছেন তার উত্তর। সোমবার মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, এই সিরিজের জন্য মাশরাফি তাদের দলে নেই। এছাড়া মাশরাফি টিম ম্যানেজমেন্ট এবং নির্বাচকদের পরিকল্পনায় নেই। কোচের চাওয়া মতো নেওয়া হয়েছে ভিশন-২০২৩। ওই পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই তাই দলের বাইরে ম্যাশ।

বিসিবির প্রধান নির্বাচন মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেছেন, ‘টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে আমাদের কিছু পরিকল্পনা দেওয়া হয়েছিল। দলের ভবিষ্যত নিয়ে আমাদেরও কিছু পরিকল্পনা আছে। দল গড়তে তরুণদের সুযোগ দিতে হবে। প্রধান কোচ, বোলিং কোচ, ফিটনেস কোচের সঙ্গে অনেক আলোচনা করই আমরা তাই মাশরাফিকে দলের বাইরে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। নতুন বছরে আমাদের নতুন করে শুরু করতে হবে।’

সর্বশেষ বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপেও মাশরাফি ভালো করেছেন। এমনকি মাশরাফি ঘরোয়া ক্রিকেটেও চালিয়ে যাওয়ার কথা বলেছেন। নির্বাচকদের মতে, এটা মাশরাফির নিজের ব্যাপার। এটা নিয়ে তাদের কোন সমস্যা নেই। এমনকি নির্বাচকরা মনে করেন, মাশরাফির এখনও খেলে যাওয়ার সামর্থ্য আছে। কিন্তু এক বছর পরে তার জন্য সর্বোচ্চ পর্যায়ের ক্রিকেট খেলা কঠিন হয়ে যাবে।

মাশরাফির জায়গায় সুযোগ দেওয়া হচ্ছে হাসান মাহমুদ, শরিফুল ইসলামদের মতো তরুণ পেসারদের। কিন্তু বিসিবির অন্য নির্বাচক হাবিবুল বাশার এই তরুণদের মাশরাফির সঙ্গে তুলনা না করার পক্ষে, ‘মাশরাফি ২০ বছর সার্ভিস দিয়েছে। সে আইকনিক ক্রিকেটার। তার সঙ্গে কারো তুলনা করবো না। তার জায়গায় কোন তরুণকে নিয়ে এক্সপ্রেরিমেন্ট (পরীক্ষা-নিরিক্ষা) হচ্ছে না। বরং তরুণদের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। তৈরি করা হচ্ছে। আমাদের আশা, তারা ভবিষ্যতে ভালো করবে।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ শুরু হবে আগামী ২০ জানুয়ারি। আগামী ৭ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে ক্রিকেটারদের অনুশীলন। ১০ জানুয়ারি থেকে দলের সবার আনুষ্ঠানিক অনুশীলন শুরু হবে। ক্রিকেটাররা চলে যাবেন বায়ো-বাবলে। ওয়ানডে সিরিজ আগে শুরু হলেও টেস্ট দলে থাকা ক্রিকেটারা একই সঙ্গে বায়ো-বাবলে চলে যাবেন বলে জানানো হয়েছে।

ওয়ানডে সিরিজের প্রাথমিক দল: তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, নাজমুল ইসলাম শান্ত, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, লিটন দাস, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, সৌম্য সরকার, ইয়াসির আলী, নাঈম শেখ, তাসকিন আহমেদ, আল আমিন হোসেন, শরিফুল ইসলাম, হাসান মাহমুদ, সাইফ হাসান, মুস্তাফিজুর রহমান, মেহেদি মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, নাসুম আহমেদ, পারভেজ ইমন, মাহেদি হাসান, রুবেল হোসেন।

প্রাথমিক টেস্ট দল: মুমিনুল হক, তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, নাজমুল হোসাইন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, লিটন দাস, ইয়াসির আলী, সাইফ হাসান, আবু জায়েদ, তাসকিন আহমেদ, খালেদ আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, মেহেদি মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, নুরুল হাসান সোহান, নাঈম হাসান, এবাদত হোসেন, হাসান মাহমুদ, সাদমান ইসলাম।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে