মাদারীপুরে স্থায়ী জামিন পেলেন বিএনপি নেতা শামসুজ্জামান

0
186
শামসুজ্জামান দুদু। ফাইল ছবি।

মাদারীপুরে দায়ের করা এক মামলায় বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান শামসুজ্জামানকে স্থায়ী জামিন দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার বেলা ১২টার দিকে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. নাজির আহমেদ এই আদেশ দেন।

দলীয় সূত্র জানায়, গত ১৬ সেপ্টেম্বর বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ডিবিসি নিউজে ‘রাজকাহন’ টকশো অনুষ্ঠানে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান অংশ নেন। তিনি বলেন, ‘যেভাবে শেখ মুজিব বিদায় হয়েছে সেভাবে শেখ হাসিনা বিদায় হবে’। এ মন্তব্যের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জীবননাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে এমন অভিযোগে গত ২৯ সেপ্টেম্বর মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের আইনবিষয়ক সম্পাদক বাবুল আক্তার বাদী হয়ে আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।

দলীয় সূত্র আরও জানায়, এর আগে হাইকোর্ট তাঁকে ৬ সপ্তাহের জামিনের আদেশ দিয়ে নিম্ন আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন। সেই আদেশ অনুসারে আজ বুধবার শামসুজ্জামান চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বেচ্ছায় হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন। জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক জামিনুর হোসেন ও শরীফ মো. সাইফুল কবীর জামিন শুনানিতে অংশ নেন। এ সময় কোর্ট এলাকায় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য কাজী হুমায়ন কবির, জেলা বিএনপির সদস্যসচিব জাহান্দার আলী, জেলা যুবদলের সভাপতি মোফাজ্জেল হোসেন, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি শাহীন মৃধা প্রমুখ।

জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক জামিনুর হোসেন বলেন, একই ঘটনায় সারা দেশে শামসুজ্জামানের বিরুদ্ধে ৭-৮টি মামলা হয়। যা মূলত হয়রানিমূলক মামলা। তিনি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থেকে উচ্চ আদালতের নির্দেশ মতো নিম্ন আদালতে স্বেচ্ছায় হাজির হয়ে স্থায়ী জামিন পেয়েছেন।

জামিন নিয়ে বের হয়ে শামসুজ্জামান বলেন, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে বিএনপি কঠোর অবস্থানে রয়েছে। এ ব্যাপারে সরকারকে তাঁরা সংযত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। সিন্ডিকেটের মধ্য দিয়ে যারা ক্ষতি করছে, তাদের আরও নিয়ন্ত্রণ করা উচিত। চাল, পেঁয়াজসহ অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখা উচিত। যদি তা না করে তাহলে বিএনপি আন্দোলনের দিকেই যাবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে