মাদক মামলায় তৃতীয় দফায় রিমান্ডে মোহামেডানের লোকমান

0
167
লোকমান হোসেন ভূঁইয়া। ছবি: বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ওয়েবসাইট থেকে নেওয়া

মাদক মামলায় মোহামেডান ক্লাবের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক লোকমান হোসেন ভূঁইয়াকে তৃতীয় দফায় দুই দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দিয়েছেন আদালত। পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত আজ বৃহস্পতিবার এই আদেশ দেন।

এর আগে পুলিশ লোকমান হোসেন ভূঁইয়াকে দুই দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আজ আবার আদালতে হাজির করে। তাঁকে পাঁচ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার আবেদন করা হয়। আদালত উভয় পক্ষের বক্তব্য শুনে লোকমান হোসেন ভূঁইয়াকে দুই দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দেন।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় দফায় লোকমান হোসেন ভূঁইয়াকে দুই দিন রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি দেন আদালত। রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, আসামি লোকমান হোসেন ভূঁইয়ার বাসায় বিদেশি মদ পাওয়া গেছে। লোকমানের সহযোগীদের কাছেও বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য আছে বলে জানা গেছে। অপর সহযোগীদের নাম-ঠিকানা জেনে তাঁদের গ্রেপ্তার করার জন্য লোকমানকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা জরুরি।

রিমান্ড আবেদনে আরও বলা হয়, মোহামেডান ক্লাবে ক্যাসিনো পরিচালনার সঙ্গে লোকমানের সংশ্লিষ্টতা বিষয়ক তথ্য উদ্‌ঘাটনের জন্য তাঁকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা আদালতকে বলেন, মোহামেডান একটি ঐতিহ্যবাহী ক্লাব। এই ক্লাবের সুনাম রয়েছে। কিন্তু আসামি লোকমান এই ক্লাব ক্যাসিনো ও জুয়া খেলার জন্য ভাড়া দিয়েছিলেন।

এর আগে ২৫ সেপ্টেম্বর রাতে রাজধানীর মণিপুরিপাড়ার বাসা থেকে লোকমান হোসেন ভূঁইয়াকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব-২। এ সময় তাঁর বাসা থেকে চার বোতল বিদেশি মদ উদ্ধার করে র‍্যাব। এ ঘটনায় পুলিশের পরিদর্শক জাহিদুর রহমান বাদী হয়ে তেজগাঁও থানায় একটি মামলা করেন। পরদিন লোকমানকে আদালতে হাজির করে পাঁচ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিশ। আদালত সেদিনও দুই দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে