ভারতে বন্যায় ১৪৭ জনের মৃত্যু

0
398
বন্যা কবলিত মানুষদের উদ্ধার করা হচ্ছে।রয়টার্স

ভারতের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে ভয়াবহ বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৪৭ জনে পৌঁছেছে। লাখ লাখ মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে আশ্রয়কেন্দ্রে গিয়েছে।

ভারী বৃষ্টির পর বন্যা ও ভূমিধসের কারণে কর্নাটক, কেরালা ও মহারাষ্ট্রের লাখ লাখ মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে আশ্রয়কেন্দ্রে যেতে বাধ্য হয়েছে।

জরুরি বিভাগের কর্মীরা পানিবন্দি লাখ লাখ মানুষকে উদ্ধারে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। খবর রয়টার্সের।

রোববার পর্যন্ত কেবল কেরালাতেই বৃষ্টিজনিত দুর্ঘটনা, বন্যা ও ভূমিধসে অন্তত ৫৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে এক লাখ ৬৫ হাজারেরও বেশি মানুষকে।

কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানিয়েছেন, অনেক বাড়িঘর এখনও ১০-১২ ফুট কাদায় ঢেকে আছে। এ পরিস্থিতিতে উদ্ধার কাজ ব্যাহত হচ্ছে।

গত বছর কেরালায় বন্যায় দুই শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়।

কর্নাটকের প্রাচীন শহর হাম্পিতে বিশ্ব ঐতিহ্যের অন্তর্ভুক্ত কয়েকটি স্থাপনাও বন্যার পানিতে ডুবে আছে।

এ দফার বৃষ্টি-বন্যায় রোববার পর্যন্ত ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পা। আশ্রয় কেন্দ্রে আছেন প্রায় ২ লাখ ২৭ হাজার বাসিন্দা। আর মহারাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা ৩০ ছাড়িয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত অনেক এলাকার রেল যোগাযোগ চালু করতে সপ্তাহ দুয়েক সময় লাগতে পারে বলেও কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

এবছর আসাম, বিহার ও গুজরাতের অনেক এলাকা বন্যার পানিতে ডুবে গেছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.