ভারতের কাছে উড়ে গেল বাংলাদেশ

0
335
প্রথম গোলের মুহূর্ত।

ম্যাচের আগেই ফাইনালে ওঠার স্বপ্নটা প্রায় শেষ হয়ে গিয়েছিল। দিনের প্রথম ম্যাচে ভুটানকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে নেপাল। ফলে ভারতের বিপক্ষে নিজেদের ম্যাচে শুধু জিতলেই চলত না। সমীকরণ মেনে বেশ অনেকগুলো গোলও করতে হতো বাংলাদেশকে। কারণ নেপালের সঙ্গে ৪-১ গোলে হেরে যাওয়া হেড টু হেডে পিছিয়ে পড়েছে বাংলাদেশ। কিন্তু হিমাংশু জংর কঠিন হিসাব নিকাশের ঝামেলায় পড়তে দেয়নি আয়োজকদের। তার হ্যাটট্রিকে বাংলাদেশকে ৪-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছে ভারত।

এ হারের পাঁচ দলের মধ্যে তৃতীয় হয়ে সাফ শেষ করল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কা ও ভুটানকে গোলে ভাসিয়ে শীর্ষ গোলদাতা হওয়ার দৌড়ে বেশ এগিয়েছিল বাংলাদেশের আল আমিন। আজকের হ্যাটট্রিকে তাকেও টপকে গেল জংর। প্রথমার্ধে এক গোল করা জংর দ্বিতীয়ার্ধের শেষভাগে করেছে বাকি দুই গোল। নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে বাংলাদেশের বোঝা বাড়িয়েছে পল।

ম্যাচের শুরু থেকেই বৃষ্টির সঙ্গে লড়তে হয়েছে দু দলকে। মাঠে জমে থাকা পানিতে ভালোভাবে পাসিং ফুটবল খেলা যাচ্ছিল না। বারবার ছোট ছোট পাসে খেলা এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করতে গিয়ে আটকা পড়েছে বাংলাদেশ। পরিস্থিতি বুঝতে পেরে লম্বা ক্রসে খেলা শুরু করে ভারত। চারটি গোলই এসেছে সেট পিস থেকে। ২৯ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে করা ফ্রি কিকে মাথা ছুঁয়ে প্রথম গোলের দেখা পায় জংর। ৭৪ মিনিটেও আরেকটি ফ্রি কিক থেকে হেড করে ব্যবধান বাড়ায় জংর। ৭৯ মিনিটে হ্যাটট্রিক পূর্ণ হয় কর্নার থেকে আসা বলে আরেকটি হেডে! গোলরক্ষকের ভুলও এ ক্ষেত্রে অবদান রেখেছিল।

৯০ মিনিটের গোলটিও এসেছে ফ্রি কিক থেকে। দারুণ এক ফ্রি কিক হাত দিয়ে পাঞ্চ করে বের করে দিতে চেয়েছিল গোলরক্ষক। কিন্তু সেটা বারে লেগে আবার ফিরে আসে মাঠে। বাংলাদেশের কোনো ডিফেন্ডার সে বল রক্ষায় এগিয়ে না আসায় অনায়াসে ব্যবধান বাড়িয়ে নেয় পল।

প্রথম দুই ম্যাচে ১২ গোল দেওয়া বাংলাদেশ তুলনামূলক কঠিন প্রতিপক্ষের বিপক্ষে দুই ম্যাচে ৮ গোল খেয়েছে এবারের সাফে। শিরোপা ধরে রাখার প্রচেষ্টাটা এভাবে শেষ হবে কে জানত?

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে