ভারতের করোনায় আক্রান্ত ৮০ হাজার ছাড়াল, মৃত বেড়ে ২৬৪৯

0
88
শনিবার সকাল নাগাদ ভারতের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৮৫ হাজার ৭৮৪ জন।

ভারতে নভেল করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। এ ছাড়া এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়িয়েছে আড়াই হাজার।

শুক্রবার এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ৮১ হাজার ৯৭০ জনে। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৬৪৯ জনের। এ ছাড়া এখন পর্যন্ত ওই রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২৭ হাজার ৯২০ জন।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের শুক্রবার সকাল পর্যন্ত দেওয়া পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ১০০ জন করোনা রোগীর, আর নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৩ হাজার ৯৬৭ জন।

করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে ভারতে গত ২৫ মার্চ থেকে লকডাউন জারি করা হয়। তবে ইতোমধ্যেই দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ইঙ্গিত দিয়েছেন, আগামী ১৭ মের পরেও উঠছে না লকডাউন। ১৮ মে থেকে দেশে জারি হবে চতুর্থ ধাপের লকডাউন, ভারতে যাকে বলা হচ্ছে ‘লকডাউন ৪.০’।

তবে লকডাউন জারি রেখেই বিভিন্ন জায়গায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণের প্রবণতা বিবেচনা করে কিছু কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়ার কথাও বিবেচনা করছে দেশটি। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক পথে ফিরতেই হবে, তাই প্রথমেই শিথিল করা হতে পারে বিমান ও স্থানীয় পরিবহনগুলো চলাচলে জারি রাখা নির্দেশিকা।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘লকডাউন ৪.০’ এর সময় যাত্রীসংখ্যা সীমিত রেখে শুরু করা হতে পারে বাস, ট্যাক্সি ও অটো পরিষেবাও, তবে সব যানবাহনই চলবে করোনাভাইরাসের হটস্পট নয় এমন জায়গাতেই। মূলত নন-কনটেইনমেন্ট জোনগুলোতেই চলাচল করবে সেগুলো। জানা গেছে, দেশটির সরকার আগামী সপ্তাহ থেকেই ভারতের মধ্যে বিমান পরিষেবা শুরু করার পরিকল্পনাও করছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে