ভারতীয় তরুণদের ধ্বংস করতে পাকিস্তান মাদক পাঠাচ্ছে: মোদি

0
216
ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ছবি: এএফপি

ভারতে জঙ্গি ও অস্ত্র পাচারে ব্যর্থ হওয়ায় পাকিস্তান এখন যুবসমাজকে ধ্বংস করতে মাদক পাচার করছে উল্লেখ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের সির্সা জেলায় এক নির্বাচনী জনসভায় আজ শনিবার এ কথা বলেন তিনি।

হরিয়ানা ও মহারাষ্ট্র রাজ্যে বিধানসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী সোমবার। আজ শেষ দিনের নির্বাচনী প্রচারণায় যোগ দেন মোদি।

জনসভায় মোদি আরও বলেন, ‘হরিয়ানার যুবসমাজকে অবশ্যই মাদক প্রতিহত করতে হবে। এটা শুধু মাদকাসক্তদের ধ্বংস করে না, সঙ্গে পরিবার এবং সমাজকেও ধ্বংসের মুখে ঠেলে দেয়। তিনি বলেন, প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তান প্রথমে ভারতে জঙ্গি ও অস্ত্র প্রবেশ করাতে চেষ্টা করেছে। এখন যুবসমাজকে ধ্বংস করতে মাদকদ্রব্য প্রবেশ করাতে চাইছে। আমরা যেভাবে জঙ্গিবাদ প্রতিহত করি, সেভাবে মাদকদ্রব্য প্রবেশও প্রতিহত করতে হবে।’

কৃষকদের পানি সরবরাহ, যুবসমাজের কর্মসংস্থান, কার্তারপুর করিডোর, জম্মু ও কাশ্মীরে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল এবং সাবেক কংগ্রেস সরকারের সমালোচনা করেও নানা কথা বলেন মোদি।

গুরদাসপুরের ডেরা বাবা নানকের সঙ্গে কার্তারপুরের দরবার সাহেব গুরুদুয়ারাকে সংযুক্ত করা করিডোর প্রসঙ্গে মোদি বলেন, ‘১৯৪৭ সালে দেশভাগের সময় সীমা নির্ধারণকারীরা কি ভাবেনি যে ভক্তদের গুরু থেকে চার কিলোমিটার দূরে রাখা উচিত নয়? কংগ্রেস সরকারের কি উচিত ছিল না এই দূরত্ব কমিয়ে আনার চেষ্টা করা? কংগ্রেস এবং এটার সংস্কৃতির সঙ্গে যুক্ত দলগুলো কখনোই ভারতীয় সংস্কৃতিকে সম্মান করেনি।’

কার্তারপুর করিডোরের কাজ প্রায় শেষ উল্লেখ করে মোদি বলেন, এই সুযোগ স্বাধীনতার ৭০ বছর পর এসেছে। পবিত্র স্থানটিকে এত বছর ধরে দূর থেকে বাইনোকুলার দিয়ে দেখার মতো দুর্ভাগ্যজনক আর কী হতে পারে?

জম্মু এবং কাশ্মীরে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল প্রসঙ্গে মোদি বলেন, ঘুমন্ত সরকারগুলো কাশ্মীরের পরিস্থিতি আরও খারাপ করে দিয়েছে। কাশ্মীরের একটি অংশ ছিনিয়ে নিয়েছে পাকিস্তান। সুফি প্রথাগুলো ধ্বংস করা হয়েছে। কাশ্মীরের পণ্ডিতদের হত্যা করা হয়েছে। তাদের মেয়েদের ধর্ষণ করা হয়েছে। এরপর পণ্ডিতদের কাশ্মীর ছাড়তে বাধ্য করা হয়েছে।’

আগামী বৃহস্পতিবার হরিয়ানা ও মহারাষ্ট্রের নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.