বড় মাপের ভূমিকম্পে দেশে ভয়াবহ ক্ষতির আশঙ্কা

0
49
আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন ইউএসটিসি উপাচার্য জাহাঙ্গীর আলম, ছবি: সংগৃহীত

আজ রোববার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রামের (ইউএসটিসি) উদ্যোগে আয়োজিত ‘ভূমিকম্প সচেতনতা সৃষ্টি ও করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় উপাচার্য জাহাঙ্গীর আলম এসব কথা বলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক শুভ্র প্রকাশ দত্ত সভা সঞ্চালনা করেন। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান ও শিক্ষকেরা অংশ নেন।

জাহাঙ্গীর আলম বলেছেন, বাংলাদেশ একটি ভূমিকম্প ঝুঁকিপূর্ণ স্থান। দেশের মধ্যে ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও সিলেটের মতো জনবহুল এলাকা বেশি ভূমিকম্প ঝুঁকিতে রয়েছে। এ জন্য ভূমিকম্প মোকাবিলায় নতুন ভবন বা অবকাঠামো নির্মাণে ভূমিকম্পবিষয়ক বিশেষ নিয়ম মেনে চলতে হবে। এ ছাড়া অব্যবহারযোগ্য, সংস্কারযোগ্য ও ঝুঁকিপূর্ণ ভবন কিংবা অবকাঠামো চিহ্নিত করে ঝুঁকিপূর্ণ কাঠামোগুলো ভেঙে ফেলতে হবে।

ভবন নির্মাণের সঙ্গে জড়িত প্রকৌশলী, স্থপতি, নকশাবিদ, নির্মাতা, বাড়ির মালিক ও জনসাধারণকে সতর্ক হতে হবে বলে মন্তব্য করেন অধ্যাপক জাহাঙ্গীর আলম। এ জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষগুলোকে এই বিষয়ে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

গত শুক্রবার ভোর ৫টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা, চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় ভূকম্পন অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে ভূকম্পনের মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৮।

ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল মিয়ানমার-ভারত সীমান্ত। ওই ভূমিকম্পে বিভিন্ন স্থানের ভবন কেঁপে ওঠে। এতে অনেকে ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়ে। ভূমিকম্পে চট্টগ্রাম নগরের দুটি ভবন হেলে পড়ার খবর পাওয়া যায়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে