বান্ধবীর স্বামীকে ছিনিয়ে নিয়ে বিয়ে করেন অমৃতা!

0
318
অমৃতা

মালাইকা অরোরার বোন অমৃতার যেন বিতর্ক পিছু ছাড়তে চায় না। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন কারণে তিনি সমালোচিত। বিয়ের ১১ বছর পর তার বিরুদ্ধে উঠেছে আরেক গুরুতর অভিযোগ। সেটি হলো, বন্ধুর স্বামী শাকিলকে ছিনিয়ে নিয়েছেন তিনি।

জি-নিউজের খবরে বলা হয়েছে, অমৃতা অরোরার কলেজের বন্ধু নিশা রানার স্বামী ছিলেন শাকিল লাদাক। নিশা ও শাকিলের সংসারের মাঝে নাকি অবাঞ্ছিতভাবে প্রবেশ করেন অমৃতা। মালাইকার বোন অমৃতার সঙ্গে পরিচয় হওয়ার পর থেকে ক্রমশ নিশার কাছ থেকে দূরে সরে যেতে শুরু করেন শাকিল। অবশেষে ২০০৬ সালে নিশা রানার সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে যায় শাকিল লাদাকের।

নিশার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ২০০৯ সালে অমৃতার সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন শাকিল।

তাদের বিয়েতে হাজির ছিলেন কারিনা কপুর খান থেকে শুরু করে বলিউডের অনেক তারকা। অমৃতার সঙ্গে শাকিলের বিয়ে নিয়ে যখন জোর সমালোচনা শুরু হয়,  সেই সময় অরোরা সিস্টার্সদের মা জয়েস অরোরা মুখ খোলেন।

শাকিল লাদাক

তিনি বলেন,  শাকিলের সঙ্গে নিশার বিচ্ছেদের জন্য অমৃতা মোটেও দায়ি নন। নিশার সঙ্গে ২০০৬ সালে শাকিলের বিচ্ছেদের পর ২০০৯ সালে অমৃতা বিয়ে করেন। ফলে নিশা রানার অভিযোগের কোনও ভিত্তি নেই।

প্রসঙ্গত, ক্রিকেটার উসমান আফজালের সঙ্গে এক সময় সম্পর্কে জড়ান অরোরা। যদিও সেই সম্পর্ক বেশি দিন স্থায়ী হয়নি। উসমান আফজালের সঙ্গে বিচ্ছেদের পরই শাকিল লাদাকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান অমৃতা।

এদিকে শাকিল লাদাকের সঙ্গে ১১ বছর ধরে যখন সংসার করছেন অমৃতা, তখন প্রথম বিয়ে ভেঙে অর্জুন কাপুরের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান মালাইকা অরোরা। সালমান খানের ভাই আরবাজ খানের সংসার থেকে ছেলেকে নিয়ে বেরিয়ে এসে বনি কাপুরের ছেলে অর্জন কাপুরের সঙ্গে নতুন করে সম্পর্কে রয়েছেন মালাইকা অরোরা। তবে মালাইকা ও অর্জুন কবে গাঁটছড়া বাঁধছেন, সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে