বাঁচার লড়াইয়ে প্রমাণ দিলেন তিনি ‘অমৃত’ ২৮ দিন সাগরে ভেসে বাড়ি ফেরা

0
259
অমৃত কুজুর

টানা ২৮ দিন সাগরে নৌকায় ভেসে জীবনের সঙ্গে লড়াই করে শেষ পর্যন্ত বাড়ি ফিরেছেন ভারতের এক ব্যক্তি তার নাম অমৃত কুজুর মৃত্যুর মুখ থেকে বেঁচে ফিরেই যেন নামের সার্থকতা রাখলেনতিনি অমৃত

বয়স ৪৯ বছর। একটু বেশি আয় করার আশায় আন্দামাননিকোবর দ্বীপপুঞ্জ থেকে এক বন্ধুকে নিয়ে সমুদ্রে যাত্রা করেছিলেন তিনি। তার বন্ধুর নাম দিব্যরঞ্জন। তাদের সঙ্গে ছিল বিক্রির জন্য খাদ্যসামগ্রী। ভাসমান জাহাজে সেগুলো বিক্রির উদ্দেশ্য ছিল তাদের। হঠাৎ ঝড়ের কবলে পড়ে তাদের নৌকা। তারপর সব শেষ। দিশা হারিয়ে দুই বন্ধু বেঁচে থাকার লড়াই শুরু করেন

উত্তাল সমুদ্রের বুকে এদিকওদিক ঘুরপাক খেতে থাকল তাদের নৌকা। খাবার নেই, পানি নেই। এমন পরিস্থিতির সঙ্গে কয়েকদিন লড়াই করে হেরে গেলেন দিব্যরঞ্জন। তার মৃত্যু হলো। তবে হার মানেননি অমৃত। অবিচল মনোবলই অবশেষে তাকে জিতিয়ে দিয়েছে। ২৮ দিন পর তার নৌকা ভেড়ে ওড়িশার খিরিশাহি গ্রামের উপকূলে। এক হাজার ৩০০ কিলোমিটার দূরের এক দ্বীপ থেকে বঙ্গোপসাগর পেরিয়ে ওড়িশায় ভেসে আসা অমৃতকে এলাকাবাসী যখন উদ্ধার করে, তখন তার হাঁটার মতো অবস্থা ছিল না। প্রাণটুকু ছিল আর কি!

পুলিশ সূত্র জানায়, অমৃত আন্দামাননিকোবরের দক্ষিণপূর্বাঞ্চলের শহিদ দ্বীপের বাসিন্দা। গত ২৮ সেপ্টেম্বর তারা বিক্রির জন্য খাবার সামগ্রী নিয়ে সাগরে নৌকা ভাসিয়েছিলেন। নৌকায় ছিল পাঁচ লাখ টাকার জিনিস। প্রথম কয়েকদিন ভালোই চলছিল। হঠাৎ সমুদ্রে ঝড় শুরু হয়। সময় তাদের নৌকা মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ছিন্ন হয়ে যায় ওয়্যারলেস কমিউনিকেশন। পাল ছেঁড়া নৌকা দিশা হারিয়ে ভেসে বেড়াতে থাকে। মিয়ানমার নৌবাহিনীর একটি জাহাজ থেকে জ্বালানি খাবার মিললেও ফের ঝড়ের কবলে পড়েন তারা। নৌকায় পানি ঢুকতে থাকে। জিনিসপত্র ভেসে যায়

বৃষ্টির পানি খেয়ে অমৃত বাঁচলেও বন্ধু দিব্যরঞ্জন আর প্রাণে বাঁচেননি। তবে প্রায় এক মাস এভাবে লড়াই করায় অমৃতের মনোবলের প্রশংসা করছেন সবাই। মৃত্যুর মুখে জীবন বাঁচানোর লড়াইয়ের এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত তিনি। ভালো থাকুন অমৃত। সূত্র :এই সময়

 

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে